ঢাকা, রোববার 18 November 2018, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

নিউইয়র্কে হামলায় অস্বস্তিতে বাংলাদেশিরা

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে সোমবার  বাস টার্মিনালে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। ওই সন্ত্রাসী হামলা চেষ্টায় আটক করা হয়েছে ২৭ বছরের বাংলাদেশি  যুবক আকায়েদ উল্লাহকে। ওই যুবক বেশ অস্বস্তিতে ফেলে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাংলাদেশিদের।

যুক্তরাষ্ট্রের মূল ধারার গণমাধ্যম এমনকি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বেশ সচেতনভাবেই বলছেন, এই হামলার খবরের সঙ্গে সঙ্গে তার জাতীয়তা কি সেটা কোনো সংবাদ বিবেচ্য হওয়া উচিৎ নয়। তবু সেখানে বসবাসকারী বাংলাদেশিদের অনেকেই ভাবছেন, বিব্রত হওয়ার সীমা অতিক্রম হয়েছে আকায়েদের এই কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে।

ঘটনার দিন বিকেল সোয়া ৫ টার দিকে নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে নিউইয়র্ক পুলিশ বাহিনীতে কাজ করা কয়েকশ’ বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত পুলিশদের সংগঠন বাংলাদেশি-আমেরিকান পুলিশ এসোসিয়েশন (বাপা)।

‘উই স্ট্যান্ড উইথ অল আমেরিকান, উই উইল ফাইট’ এ কথা উল্লেখ করে সংগঠনটির প্রেসিডেন্ট শামসুল হক বলেন, এটা আমাদের সব বাংলাদেশির জন্য একটি দুঃখের দিন।

তিনি বলেন, এটা কোনো পুলিশি আনুষ্ঠানিক বক্তব্য নয় বা এনওয়াইপিডি আমাদেরকে দাঁড়িয়ে কিছু বলার জন্য পাঠায়নি। আমরা এখানে আমাদের নিজেদের প্রয়োজনে দাঁড়িয়েছি, যে আমাদের খারাপ লাগছে। বাংলাদেশি পুলিশ সদস্য হিসেবে আমরা সকল সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রতি নিন্দা এবং ঘৃণা জানাই। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড কেবল তাদের মাধ্যমেই সংগঠিত হয় যারা সন্ত্রাসী। সেই সন্ত্রাসীদের একজন হিসেবে বাংলাদেশির নাম এসেছে, এতে মর্মাহত।

সংবাদ সম্মেলনে কয়েকজন পুলিশ সদস্য, নিউইয়র্ক পুলিশের সতর্কতামূলক পোস্টার এবং ব্যানার নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকেন। তারা অনুরোধ রাখেন, যদি কেউ সন্দেহমূলক কিছু দেখেন, তাহলে সাথে সাথেই যেন পুলিশকে জানান।

উল্লেখ্য, হামলাকারী আকায়েদের  বাড়ি সন্দীপের মুছাপুরে বলে জানা গেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ