ঢাকা, শুক্রবার 15 December 2017, ১ পৌষ ১৪২৪, ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

হত্যা করে মুক্তিকামী জনগণের বিজয়কে দমিয়ে রাখা যায় না -খালেদা জিয়া

গতকাল বৃহস্পতিবার মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজধানী ঢাকার মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে দলের নেতা-কর্মীদের নিয়ে স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণের পর সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে শ্রদ্ধা জানান বিএনপি নেত্রী। এদিকে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে গতকাল বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সামাজিক মাধ্যম টুইটার পেজে টুইট করেছেন। টুইট বার্তায় তিনি বলেন, হত্যা করে মুক্তিকামী জনগণের বিজয়কে দমিয়ে রাখা যায় না, শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ফ্যাসিস্ট-খুনী শাসকগোষ্ঠীদের জন্য এই শিক্ষাই দেয়। পরিকল্পিত হত্যার শিকার ’৭১’র ডিসেম্বরের মৃত্যুঞ্জয়ী শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণ করছি গভীর বেদনা ও বিনম্র শ্রদ্ধা জানাই।
গতকাল সকাল পৌনে ১০টায় গুলশানের বাসভবন ফিরোজা থেকে মিরপুর বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধের উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন তিনি।
শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড আবদুল মঈন খান, ভাইস চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, শামসুজ্জামান দুদু, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, ডা. সিরাজুল ইসলাম, আবদুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স, শামা ওবায়েদ, সাহিত্য ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিব, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক সরাফত আলী সফু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহ দপ্তর মুনির হোসেন, নির্বাহী কমিটির সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম, সালা উদ্দিন ভুইয়া শিশির, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া অঙ্গসংগঠনের সাইফুল ইসলাম নিরব, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, শফিউল বারী বাবু, সুলতানা আহমেদ, হেলেন জেরিন খান, মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু, আহসানউল্লাহ হাসান, রাজীব আহসান, আসাদুজ্জামান আসাদসহ কয়েক হাজার নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।
শ্রদ্ধা নিবেদনের আগে সাংবাদিকদের প্রশ্নে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, একাত্তর সালে যে স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের জন্য আমরা যুদ্ধ করেছি, স্বপ্ন দেখেছি, সেই গণতন্ত্র আজ অনুপস্থিত। এক অবরুদ্ধ অবস্থায় আমরা বাস করছি। গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনার জন্য লড়াই করছি, এই লড়াইয়ে আমরা বিজয়ী হবই।
শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর পর বিএনপি মহাসচিব বলেন, এই দিনে পাকিস্তানিরা অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে আমাদের মেধাবী সন্তানদের হত্যা করেছে। তাদের এই আত্মত্যাগ কখনো পূরণ হওয়ার নয়।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গত ৪৭ বছরে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে গেছে। যে স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের জন্য আমরা স্বপ্ন দেখেছি, সেই গণতন্ত্র আজ হারিয়ে গিয়েছে। গণতন্ত্র আজ অনুপস্থিত। আর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আমরা গণতান্ত্রিক আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি।
এদিকে সকাল সাড়ে ৮টা থেকেই শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধের সামনের সড়কে অবস্থান নেন বিএনপির অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। পৃথক পৃথক ব্যানারে খালেদা জিয়ার আগমনের আগ পর্যন্ত মিছিল করেন তারা। বিএনপি চেয়ারপারসন স্মৃতিসৌধের প্রধান ফটকে এলে অপেক্ষমাণ দলের নেকাকর্মীরা তাকে স্বাগত জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ