ঢাকা, শুক্রবার 15 December 2017, ১ পৌষ ১৪২৪, ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চারঘাট-বাঘার বালুচরে কৃষকরা কৃষিতে বিল্পব ঘটিয়েছেন

চারঘাট (রাজশাহী): পদ্মার চরে একটি সবজি ক্ষেত

মোঃ শহীদুল ইসলাম, চারঘাট (রাজশাহী) থেকে: রাজশাহীর চারঘাট-বাঘায় শুষ্ক মৌসুম শুরুর আগেই পানি কমে যাওয়ায় পদ্মার বালুচরে কৃষকরা সোনার ফসল ফলিয়ে কৃষি বিল্পব ঘটিয়েছেন। পদ্মার বুকে নানাবিধ ফসলের চাষাবাদে বদলে দিয়েছে তারা প্রকৃতির রূপ। এক সময় পদ্মা ছিল দুঃখের কারণ এখন আর সেই পদ্মার বুকে বিভিন্ন ফসল ফলিয়ে অভাব দূর করছেন এখানকার কৃষকরা।
ধূ-ধূ বালুচরে পিয়াজ, রসুন, বাঁধাকপি, ফুলকপি, লাউ, টমেটো, সিম, গাজর, মুলাসহ বিভিন্ন শাকসবজি চাষাবাদে ভরে উঠেছে। অক্লান্ত পরিশ্রমে অসম্ভবকে সম্ভব করে বাঁচার স্বপ্ন দেখছেন নদীভাঙা শত শত পরিবার। নদী বর্তমানে সমতল ভূমিতে পরিণত হয়েছে। স্বাধীনতার পর থেকে আজ পর্যন্ত নদী খনন এবং ড্রেজিং না করায় দিনের পর দিন পলি মাটিতে ভরে উঠেছে।
বালুচরে শোভা পাচ্ছে সবুজের সমারোহ। বালুচরে এলাকার কৃষান-কৃষানীরা জট বেধে বিভিন্ন ধরনের ফসল ফলাচ্ছে।
চারঘাট - বাঘা উপজেলার বিভিন্ন চরে এবছর প্রায় কয়েকশ হেক্টর জমিতে ফলবে বোর ধান। এছাড়া আরো কয়েকশ হেক্টর জমিতে ফলবে গম,মসুর,মিষ্টি আলু,ভুট্টা, পেঁয়াজ ধান, মিষ্টি কুমড়াসহ হরেক রকম ফসল।
উপজেলা কৃষি অফিস বলছেন, গত কয়েক বছর থেকে বালুচরে বিভিন্ন ফসল চাষ হচ্ছে। আগের চেয়ে এবার ফলন আরো বেশি হবে। তবে সরকারি সহায়তা পেলে ওইসব উদ্যোমী মানুষের হাতেই ভাগ্য বদলে যাবে বলে চরের মানুষ আশা প্রকাশ করছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ