ঢাকা, মঙ্গলবার 19 December 2017, ৫ পৌষ ১৪২৪, ২৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব সাংবাদিকদের জন্য উন্মুক্তকরণসহ ৫ দফা দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি

হবিগঞ্জ সংবাদদাতা : হবিগঞ্জ জেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিকের জন্য হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব উন্মুক্তকরণ, অসাংবাদিকদের বহিষ্কার ও যোগ্যদের মূল্যায়নসহ ৫ দফা দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে জেলা সদরে কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় সাংবাদিকরা। সোমবার বেলা ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি পালিত হয়। এসময় স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি তাদের সাথে কথা বলেন। পরে তারা আগামী ২১ ডিসেম্বর প্রতিকী অনশন কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেন।
মানববন্ধনকালে সাংবাদিকরা বলেন, গুটি কয়েক সাংবাদিক প্রেসক্লাবকে কুক্ষিগত করে রেখেছেন। যাদের অনেকেই বর্তমানে কোন মিডিয়ায় কর্মরত নেই। এমনকি তারা সাংবাদিকতা পেশায়ও নেই। ফলে প্রেসক্লাব একটি অকার্যকর প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। যাচাই বাছাই করে তাদেরকে প্রেসক্লাব থেকে বহিষ্কার করে জেলার সাংবাদিকদের জন্য অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। প্রেসক্লাবের কম্পিউটারসহ অন্যান্য সরঞ্জামাদি সাংবাদিকদের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করতে হবে। প্রেসক্লাবে বিভিন্ন সময় আর্থিক অনিয়ম হয়েছে বলে সন্দেহ পোষণ করে তারা সরকারিভাবে তা নিরীক্ষা করে জনসম্মুখে প্রকাশের দাবি জানান। এ ক্ষেত্রে আর্থিক অনিয়মের প্রমাণ পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বা কমিটির বিরুদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে। যথাযথ দেখভাল না থাকায় সরকার প্রদত্ত প্রেসক্লাবের ভূমি পাশর্^বর্তী বাসিন্দারা অবৈধভাবে দখল করে নিয়েছেন। তারা উক্ত ভূমি মাজঝোক করে উদ্ধার করে প্রেসক্লাবকে বুঝিয়ে দেয়ার দাবি জানান। তারা বলেন, প্রেসক্লাবের তৃতীয় তলা সাংবাদিকদের ব্যবহারের জন্য রেস্ট হাউজ করতে হবে। বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সর্বশেষ নীতিমালা অনুযায়ী সদস্য সংখ্যা বাড়িয়ে গণতান্ত্রিক পন্থায় নির্বাচনের মাধ্যমে কার্যকরি কমিটি গঠন করতে হবে।
এর আগে গত ৩ ডিসেম্বর জেলা প্রশাসক মনীষ চাকমা ও পুলিশ সুপার বিধান ত্রিপুরা এবং ৯ ডিসেম্বর হবিগঞ্জ সদর-লাখাই আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহিরের কাছে এসব দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। এছাড়া ১৩ ডিসেম্বর স্থানীয় নিমতলায় মুখে কালো কাপড় বেধে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন সাংবাদিকরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ