ঢাকা, বৃহস্পতিবার 21 December 2017, ৭ পৌষ ১৪২৪, ২ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মণিরামপুরে ইঞ্জিন ভ্যান চালককে শ্বাসরোধ করে হত্যা

মণিরামপুর (যশোর) সংবাদদাতা: যশোরের মণিরামপুরে আশরাফুল ইসলাম (৩০) নামের এক ইঞ্জিন ভ্যান চালককে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত আশরাফুল ইসলাম উপজেলার মুজগুন্নী গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের ছেলে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার ভোরে উপজেলার মুজগুন্নী গ্রামের আরশাদ ফকিরের সুপারি বাগানে আশরাফুল ইসলামের লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে মণিরামপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় আনে।
নিহত আশরাফুলের স্ত্রী হামিদা খাতুন জানান, আমার স্বামীর (আশরাফুল) সাথে প্রতিবেশী মালায়েশিয়া প্রবাসী আব্দুর রাজ্জাকের স্ত্রী খালেদা খাতুনের সাথে পরকীয়া সম্পর্ক ছিল, এছাড়াও ওই মহিলার সাথে অন্যদেরও সম্পর্ক ছিল। আমার স্বামীকে এর আগে বলেছি, আমার যদি ভালো না লাগে আমাকে তালাক দিয়ে ওই মহিলাকে বিয়ে করো। আমার স্বামীকে ওই মহিলা (খালেদা) থেকে হত্যা করেছে।
নিহতের বড় ভাই নজরুল ইসলামের ছেলে মাজাহারুল ইসলাম মুন্না বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে প্রবাসী রাজ্জাকের স্ত্রী খালেদা খাতুন আমাকে মোবাইল ফোনে (০১৭৪০৫৯১৫০২) বলে তোমার চাচা খুব অসুবিধার মধ্যে আছে, তোমরা আয়। আমি সাথে সাথে বিষয়টি আমার প্রতিবেশী দাদা শ্যামকুড় ইউপি সদস্য ফারুক হোসেনকে জানায়।
শ্যামকুড় ইউপি সদস্য ফারুক হোসেন জানায়, মুন্না আমাকে বিষয়টি মোবাইলে জানিয়েছিল, কিন্তু আমার শরীর ভালো না থাকায় ও মাছের ঘেরে ব্যস্ত থাকার কারণে আমি বিষয়টি দেখার জন্য স্থানীয় বাবুলসহ আরো কয়েক জনকে বলি। তা ছাড়া প্রবাসী স্ত্রী খালেদাকে নিয়ে বেশ কয়েকবার শালিশ বিচার হয়েছে, মামলায়ও পড়তে হয়েছে অনেককে। এ কারণে ওই মহিলাদের বাড়িতে কেউ যেতে চায় না।
মণিরামপুর থানার ওসি মোঃ মোকাররম হোসেন জানান, নিহতের কলায় ফাঁসের চি‎হ্ন রয়েছে, লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।
এ ঘটনায় প্রবাসীর স্ত্রী খালেদা কে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ