ঢাকা, শুক্রবার 22 December 2017, ৮ পৌষ ১৪২৪, ৩ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

হাথুরুসিংহেকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেয়ার আশ্বাস শ্রীলংকার   

স্পোর্টস রিপোর্টার : বাংলাদেশের কোচ হিসেবে আড়াই বছরে পূর্ণ স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করেছিলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। দলে কাকে রাখা হবে, আর কাকে রাখা হবে না সেটাও ঠিক করতেন তিনি। মাঝেমধ্যে স্বাধীনতার অপব্যবহার করার অভিযোগও উঠেছিল তার বিরুদ্ধে। তারপরও বাংলাদেশের অন্যতম সফল কোচ বলা যায় তাকে। এখন তিনি শ্রীলংকার প্রধান কোচ। সেখানেও তিনি স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারবেন বলে আশ্বাস দিয়েছে শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড।

অবশ্য বাংলাদেশের মতো দল নির্বাচনের দায়িত্ব শ্রীলংকা পাচ্ছেন না হাথুরুসিংহে। তাছাড়া জবাবদিহিও তাকে করতে হবে বলে বোর্ড প্রেসিডেন্ট থিলাঙ্গা সুমাথিপালা জানালেন, ‘বিশ্বের অন্যতম সেরা কোচকে এনে তাকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে না দেওয়ার কোনও মানে নেই। আমি কোচ নই। আর কোচের দায়িত্ব সম্পর্কে বোর্ডের কেউই হাথুরসিংহের চেয়ে বেশি জানে না। তাকে আমাদের স্বাধীনতা দিতে হবে। কিন্তু আমাদের বিশ্বাস তিনি ভালোভাবে কাজ করবেন এবং প্রত্যাশা থাকবে, প্রয়োজন হলে আমাদের প্রশ্নের জবাবও দেবেন।’ তথ্য-উপাত্ত ও পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করে সিদ্ধান্ত নেন বলেই হাথুরুসিংহে শ্রীলংকা ক্রিকেটে জায়গা করে নিয়েছেন। তাছাড়া স্বদেশী হওয়ায় খেলোয়াড়দের সঙ্গে বোঝাপড়াটাও ভালো হবে মনে করেন সুমাথিপালা। ২০০০ সালের পর থেকে নিয়োগ পাওয়া কেবল মারভান আতাপাত্তু ছিলেন শ্রীলংকান  কোচ। বোর্ড প্রধান বলেছেন, ‘খেলোয়াড়দের সঙ্গে হাথুরুসিংহের মানসিকতা মিলে যাবে। তবে সবচেয়ে বড় কথা সে শ্রীলংকান। খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগ ও বোঝাপড়া ভালো হবে। আধুনিক কোচদের যে জ্ঞাণ থাকা উচিত, সেটা হাথুরুর আছে। প্রযুক্তিগত দিক দিয়ে তিনি বিশ্ব মানের কোচদের একজন।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ