ঢাকা, শনিবার 23 December 2017, ৯ পৌষ ১৪২৪, ৪ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দেশপ্রেম নিয়ে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির চর্চা করলে দেশের মানুষের মঙ্গল করা যায়

 

চট্টগ্রাম অফিস : খ্যাতিমান বিজ্ঞানী সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির প্রফেসর এমিরিটাস প্রফেসর ড. এম. শমশের আলী বলেছেন, দেশপ্রেম নিয়ে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির চর্চা করলে দেশের মানুষের মঙ্গল করা যায়। তিনি বলেন, দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কল্যাণে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিকে ব্যবহার করতে হবে।

গতকাল আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি) এর দুদিনব্যাপী টেক ফেস্ট ‘১৭ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. এম. শমশের আলী এসব কথা বলেন। আইআইইউসি’র ভারপ্রাপ্ত প্রোভিসি ও টেক ফেস্ট ‘১৭ এর আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মোঃ দেলোয়ার হোসাইন’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আইআইইউসি’র বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ, অটোমেশন গ্রুপ অব কোম্পানিজ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ আবু তাহের এবং আইআইইউসি ট্রাস্টের ট্রেজারার মুহাম্মদ নূরুল্লাহ। স্বাগতঃ বক্তব্য রাখেন টেক ফেস্ট ‘১৭ এর সদস্য সচিব ড. মোহাম্মদ আকতার সাঈদ। এতে আরো বক্তব্য রাখেন বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মনিরুল ইসলাম, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, ইলেকট্রনিক এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী আবদুল গফুর, ফার্মাসি বিভাগের চেয়ারম্যান মোঃ মাসুদুর রহমান, ইলেকট্রিকাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আতহারউদ্দিন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন স্টুডেন্ট এ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের অতিরিক্ত পরিচালক কবি চৌধুরী গোলাম মাওলা।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির প্রফেসর এমিরিটাস প্রফেসর ড. এম. শমশের আলী বলেন, দেশপ্রেমের কোন বিকল্প নেই। তিনি আইআইইউসি’র ছাত্র-ছাত্রীদের দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তির জ্ঞান অর্জন করতে বলেন যাতে দেশের কল্যাণে এই জ্ঞান ব্যবহার করা যায়। এতে এই বিশ্ববিদ্যালয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি চর্চার শ্রেষ্ঠ কেন্দ্রে পরিণত হবে এবং সমগ্র দেশ এই বিশ্ববিদ্যালয়কে অনুসরণ করবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। সর্বোপরি তিনি স্রষ্টা ও সৃষ্টির প্রতি ভালবাসা তৈরির উপর র্গুত্বারোপ করেন। 

উল্লেখ্য টেক ফেস্ট ‘১৭ এর নয়টি ইভেন্টে আটটি সরকারি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক হাজার ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতায় ইভেন্টগুলো ছিল ২৪ ঘন্টার হ্যাকাথন, প্রোগ্রামিং, সাইবার গেমিং, আইডিয়া জেনালেশন, মেডিসিনাল প্ল্যান্ট, প্রজেক্ট প্রদর্শন, পোস্টার প্রেজেন্টেশন এবং রোবো ফাইট। টেকফেস্ট এর মিডিয়া পার্টনার ছিলো দৈনিক আজাদী। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন খ্যাতিমান বিজ্ঞানী সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির প্রফেসর এমিরিটাস প্রফেসর ড. এম. শমশের আলী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ