ঢাকা, মঙ্গলবার 26 December 2017, ১২ পৌষ ১৪২৪, ৭ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

তিন দিনের আঞ্চলিক ইজতেমার সমাপ্তি

ময়মনসিংহ সংবাদদাতা : লাখো মানুষের চোখের পানিতে ভিজল ময়মনসিংহের মাটি, আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে তিন দিনের আঞ্চলিক ইজতেমার সমাপ্তি হয়েছে। এই ইজতেমায় জেলার লক্ষ্য লক্ষ্য মুসল্লী এতে অংশগ্রহণ করেন। শেষ দিন দোয়ায় শরিক হতে লাখো মুসল্লীর ঢল ছিল ইজতেমা ময়দানে। আশপাশের এলাকা ও মহাসড়ক গুলো কানায় কানায় মুসল্লীদের ভরপুর ছিল।
গত শনিবার দুপুরে আখেরী মোনাজাত শুরু হয়ে ১২টা ২১ মিনিটে শেষ হয়। এসময় দোয়া পরিচলনা করেন, কাকরাইল মসজেদের মুহাদ্দিছ মাওলানা মোহাম্মদ রবিউল হক। তখন দোয়ায় অংশ নেয়া সকল মুসল্লীরা আমিন আমিন ধ্বনিতে কান্নাঁয় ভেঙে পরেন। ভারি হয়ে যায় পুরো ইজতেমা ময়দান। গত বৃহস্পতিবার বাদ ফজরের নামাজ শেষে আমবয়ানের মধ্যদিয়ে ২১, ২২ ও ২৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী এই জেলার আঞ্চলিক জেলা ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। পরে শনিবার দুপুরে আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে জেলা ইজতেমা সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।
জানা যায়, এই ময়দানে দেশী বিদেশী ধর্মপ্রাণ মুসল্লীগণের অংশগ্রহণে এক আল্লাহ ও রাসূলের জীবন আদর্শ গঠনের বাস্তব নমুনা চর্চায় মশগুল হয়েছিল । প্রথম দিন থেকে শেষ দিন পর্যন্ত বাংলাদেশের কাকরাইল মসজিদের শীর্ষস্থানীয় মুরুব্বী আলেম ওলামাগণ এ ইজতেমায় বয়ান পেশ করেছেন। ইজতেমা সফল করতে দিন রাত পরিশ্রম করে মাঠের প্যান্ডেল, অজুখানা, টয়লেট, খুটি নির্মান ও বিদেশী মুসল্লীদের তাবু স্থাপনে স্থানীয় মাদরাসার শিক্ষক শিক্ষার্থী আলেম ওলামা ও ধর্মপ্রাণ মুসল্লীদের স্বেচ্ছায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়ছিল।
অন্যদিকে এবার বধিরদের জন্য আলাদা বয়ান শোনার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানায় ইজতেমা আয়োজক কমিটি। বদিরদের ইশারায় অনুবাদ করার ব্যবস্থাও ছিল। সারা দুনিয়ার মানুষ কিভাবে আল্লাহ ওয়ালা ও ঈমানওয়ালা হয়, জাহান্নাম থেকে রক্ষা পেয়ে যাতে জান্নাতে যেতে পারে, এই লক্ষ্য নিয়ে ময়মনসিংহ আঞ্চলিক ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এদিকে আখেরী মুনাজাতে অংশ নেন, ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মোঃ খলিলুর রহমান, পৌর মেয়র ইকরামুল হক টিটু, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, র‌্যাব-১৪, ময়মনসিংহ অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোঃ শরীফুল ইসলাম, যুবলীগের শাহরিয়ার মো. রাহাত খান, বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী তোফাজ্জল হোসেন, ইকবাল হোসেনসহ, সাংবাদিক, পেশাজীবী, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দসহ সকল মুসল্লীরা।
টাংগাইল : শেষ হলো টাংগাইলের ৩ দিনব্যাপী ইজতেমা। শনিবার দুপুরে আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ করা হয় তিন দিনব্যাপী এই ইজতেমা। দোয়া পরিচালনা করেন তাবলিক জামাতের মারকাজ কাকরাইলের মুহকিমিন মাওলানা মোশারফ হোসেন। উক্ত ইজতেমায় শুক্রবার আসরের পর বয়ান করেন মাওলানা আঃ হাই (আমির টাংগাইল)। মাগরিবের পর বয়ান করেন মাওলানা মোশারফ হোসেন (মুহকিমিন কাকরাইল)। শনিবার বাদ ফজর বয়ান করেন মাওলানা আঃ করিম (মুহকিমিন কাকরাইল)। তার পর অনুষ্ঠিত হয় দোয়া, দোয়ায় অংশগ্রহণ করেন স্থানীয় লোকজনসহ ইজতেমায় অবস্থানরত লক্ষাধিক ধর্মপ্রাণ মুসলিম জনতা। দোয়া শেষে তারা ইসলামের দাওয়াত সবার কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্য দলে দলে বিভক্ত হয়ে চলে যান বিভিন্ন জায়গায়। জানা যায় গত সপ্তাহে টাংগাইল সহ মায়মনসিংহ কিশোরগঞ্জ মেহেরপুর মোট চারটি জেলায় ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইজতেমায় দেশী মুসলিমদের পাশাপাশি দেখা যায় বেশ কিছু বিদেশী মেহমান। ইজতেমায় বিভিন্ন সুবিধার পাশাপাশি ছিল বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠার, এবং রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে ফ্রি চিকিৎসার ব্যবস্থা। ইজতেমায় বৃহস্পতিবার তিন জন শুক্রবার দুইজন এবং শনিবার একজনের জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ