ঢাকা, শুক্রবার 29 December 2017, ১৫ পৌষ ১৪২৪, ১০ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বিএনপির ভিতরে  গণতন্ত্রের কোনো  চর্চা নেই  --ওবায়দুল কাদের 

স্টাফ রিপোর্টার : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির ভিতরে গণতন্ত্রের কোনো চর্চা নেই। মেয়র প্রার্থী হিসেবে বাবা ছেলের নাম ঘোষণা করে এটা কেমন গণতন্ত্র?

গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আজকে দেখলাম বাবা (আব্দুল আওয়াল মিণ্টু) তার ছেলেকে (তাবিথ আওয়াল) ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ঘোষণা করেছে। বাবা বিএনপির নেতা, তিনি তার ছেলেকে মনোনয়ন দিয়েছেন। যেই ছেলের নাম প্যারাডাইজ পেপারে এসেছে। বাবা ছেলের নাম ঘোষণা করে, এটা কেমন গণতন্ত্র? বিএনপিতে কোনো গণতন্ত্র নেই’।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে হলে আমাদের মনোনয় বোর্ড থেকে নাম আসবে। আমি পার্টির সাধারণ সম্পাদক, হঠাৎ করে বলে দিলাম যে আওয়ামী লীগের সে প্রার্থী, এটা আমাদের দলে হবে না।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মনোনয়ন প্রতিযোগিতায় অসুস্থ কোন্দলে জড়ালে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগ একটা বড় দল। বড় দলের কিছু কিছু সমস্যা থাকে। কিন্তু আমাদের দলের সবচেয়ে বড় সৌন্দর্য্য হচ্ছে, আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের পার্টির সভাপতি। তার নেতৃত্বে আমাদের দল ঐক্যবদ্ধ।

তিনি বলেন, আমাদের যদি কোন মেজর সমস্যা হয় এবং আমরা যদি ব্যর্থ হই তাহলে আমাদের সভাপতি হস্তক্ষেপে সমস্যা সমাধান হয়। আমাদের পার্টিতে অনাকাক্সিক্ষত কিছু ঘটতে আমরা দিচ্ছি না। আমাদের দলের একজন অন্যায় করবে শাস্তি পাবে না এটা হয় না।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনকে সামনে রেখে সুস্থ প্রতিযোগিতা থাকবে। কোনো প্রার্থী আগ্রহ প্রকাশ করতেই পারে। কোন জায়গায় ১০-১৫ জন প্রার্থী আছে, থাকতে পারে। কিন্তু দলীয় মনোনয়ন দেবেন আমাদের পার্টির সভাপতি শেখ হাসিনা সেটা মনোনয়ন বোর্ডের মাধ্যমে।

খালেদা জিয়ার মামলায় সরকারের কোনও হাত নেই জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি নেতারা বলছেন, খালেদা জিয়া নির্দোষ প্রমাণিত হবে। খুব ভালো কথা। আদালতের বিচারে তিনি নির্দোষ প্রমাণিত হলে অবশ্যই খালাস পাবেন। এখানে সরকারের কোনও হস্তক্ষেপ নেই।’

কম্বল নিয়ে মারামারি 

এদিকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে চরম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়েছে। এসময় কম্বল নিতে আসা লোকদের মধ্যে মারামারির ঘটনাও ঘটেছে। এ ঘটনায় মাই টিভির সিনিয়র রিপোর্টার মানিক লাল ঘোষ আহত হয়। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, অনুষ্ঠানে ওবায়দুল কাদের কয়েক জনের হাতে কম্বল তুলে দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। এর পরপরই বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। কম্বল নিয়ে শুরু হয় মারামারি। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। এসময় সাংবাদিক মানিক লাল ঘোষের পায়ের উপর মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের নাতি গাড়ি উঠিয়ে দেন।

হাসনাতের নাতির সাথে ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী সেচ্ছাসেবক লীগের সংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ টুটুল। পরে আবুুল হাসনাত তার নাতিকে সাংবাদিক মানিকের কাছে এনে ক্ষমা প্রার্থনা করান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ