ঢাকা, শুক্রবার 29 December 2017, ১৫ পৌষ ১৪২৪, ১০ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

এবি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান-এমডিকে জিজ্ঞাসাবাদ

স্টাফ রিপোর্টার : সিঙ্গাপুরে অফশোর প্রতিষ্ঠান তৈরি করে টাকা পাচারের অভিযোগে এবি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান এম ওয়াহিদুল হক ও সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এম ফজলার রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল  বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯ টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত তাঁদের দুদক কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

দুদক সূত্রে জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টার আগেই রাজধানীর সেগুন বাগিচার দুদক কার্যালয়ে হাজির হন এবি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান এম ওয়াহিদুল হক। সাড়ে ৯ টার দিকে তাঁর জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে তিনি বেরিয়ে আসেন। এ সময় তিনি জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়ে সাংবাদিকদের কিছু বলেননি। তিনি বলেন, ‘যা বলার ওপরে জিজ্ঞাসাবাদে বলেছি।’

ব্যাংকটির সাবেক এমডি ফজলার রহমানের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয় সকাল ১০ টার দিকে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বিকেল ৫ টার দিকে বেরিয়ে এসে তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের ব্যাখ্যা দিয়েছি। বাকিটা তারা (দুদক) ভালো বলতে পারবে।’ মুদ্রা পাচারে জড়িত কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন ‘এ নিয়ে আমি কিছু বলতে পারব না।’

বিদেশে টাকা পাচারের অভিযোগে বুধবার এবি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান এম ওয়াহিদুল হক ও সাবেক দুই ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ আটজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুদক কার্যালয়ে হাজির হতে নোটিশ  পাঠানো হয়।

দুদক সূত্র জানিয়েছে, এর আগে ৯ ডিসেম্বর এবি ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান ওয়াহিদুল হক, সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম ফজলার রহমান, শামীম আহমেদ চৌধুরী এবং হেড অব ফিন্যান্সিয়াল ইনস্টিটিউশন অ্যান্ড ট্রেজারি আবু হেনা মোস্তফা কামালকে নোটিশ পাঠানো হয়। ওই নোটিশে তাঁদের ১৩ ডিসেম্বর ও ১৪ ডিসেম্বর দুদক কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হওয়ার জন্য উপস্থিত হতে বলা হয়। কিন্তু ওই সময় তাঁরা আসেননি।

 বেসরকারি খাতের এবি ব্যাংকের অফশোর ইউনিটের মাধ্যমে চার বিদেশি কোম্পানির নামে ৪ কোটি ২৫ লাখ ৪০ হাজার ডলার (বাংলাদেশী টাকায় ৩৪০ কোটি) বের করে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

চ-১ (এ) ২৮-১২-২০১৭ উঊঝক-৭ ঈঐ-=

উঊঝক- ১০ঈযধৎং-১৫২৩

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ