ঢাকা, শুক্রবার 29 December 2017, ১৫ পৌষ ১৪২৪, ১০ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কালিয়াকৈরে শিশু শিক্ষার্থী অপহণের ৪দিন পর রংপুর থেকে উদ্ধার 

 

কালিয়াকৈর সংবাদদাতা : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর রঙ্গারটেক এলাকা থেকে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষার্থী এক শিক্ষার্থী অপহরণের ৪ দিন পর রংপুরের শালবন এলাকা থেকে মঙ্গলবার বিকেলে উদ্ধার করে থানা পুলিশ। 

পুলিশ অপহরণের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আঃ রহিম (২১) এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত রহিম গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ থানার তারাপুর গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে। সে চন্দ্রা পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় বাসা ভাড়া থেকে রাজমিস্ত্রী কাজ করতো বলে স্থানীয়রা জানায়। 

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গাইবান্ধার ফুলছড়ি থানার ভাষারপাড়া এলাকার বিষু চন্দ্র দাসের স্ত্রী অঞ্জনা রানী দাস তার একমাত্র মেয়েকে নিয়ে সফিপুর রঙ্গাটেক এলাকার গোবিন্ধ বিশ্বাসের বাড়িতে ভাড়ায় থেকে স্থানীয় পোশাক কারখানায় চাকুরী করতো। 

মেয়ে মিষ্টি রানীদাস সফিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে এবছর প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা দিয়ে। গত ২২ ডিসেম্বর ২০১৭ইং বিকেলে কৌশলে সফিপুর  বাজার এলাকা থেকে মিষ্টিকে অপরহণ করে নিয়ে যায় আঃ রহিম নামে ওই যুবক। 

শিক্ষার্থীর মা বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানার একটি অপহরণ মামলা দায়ের করে। পুলিশ মোবাইল ট্যাকিংএর মাধ্যে অপরণকারীদের অবস্থান নির্ণয় করে। পড়ে তাদের রংপুরের শালবন বাজার এলাকা থেকে শিক্ষার্থীকে উদ্ধার এবং অপহরণকারী আঃ রহিমকে গ্রেফতার করে ।

কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) আঃ হাকিম জানান, শিশু শিক্ষার্থীর মা বাদী হয়ে সোমবার রাতে থানায় অপহরণের মামলা দায়ের করে। 

মামলার প্রেক্ষিতে মোবাইল ট্যাকিং করে ৪ দিন পর রংপুর থেকে অপরণকারীকে গ্রেফতার করা হয় এবং শিশু শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করা হয়। পরে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দুই জনকেই কালিয়াকৈর থানায় আনা হয়।       

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ