ঢাকা, রোববার 31 December 2017, ১৭ পৌষ ১৪২৪, ১২ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কাতারে সামরিক অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা  ভিত্তিহীন--সৌদি আরব

 

৩০ ডিসেম্বর, আল আরাবিয়া : কাতারের আমিরের বিরুদ্ধে সামরিক অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার সংবাদকে ভিত্তিহীন ও অপপ্রচার বলে উড়িয়ে দিল সৌদি আরব। তুরস্কের ইয়েনি সাফাকে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে আঙ্কারায় অবস্থিত সৌদি দূতাবাস এক বিবৃতিতে এ প্রতিবাদ জানায়।

গত ২৫ ডিসেম্বর তুরস্কের ইয়েনে সাফাকের এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, সৌদি আরব গত জুন মাসে কাতার অবরোধের আগে দেশটির আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আলে সানি’র বিরুদ্ধে সামরিক অভ্যুত্থান পরিকল্পনা করেছিল। তুরস্ক কাতারে সামরিক বাহিনী পাঠিয়ে সৌদির এ প্রচেষ্টাকে ব্যর্থ করে দেয়।

এমন সংবাদের নিন্দা জানিয়ে সৌদি দূতাবাস দাবি করে, এ ধরণের সংবাদের কোনো ভিত্তি নেই। এ সংবাদ প্রত্যাহার করছে সৌদি। এ ধরণের সংবাদ প্রকাশের আগে সত্যতা যাচাই করা উচিত বলেও সৌদি দূতাবাস ইয়েনি সাফাককে আহ্বান জানায়।

এর আগে একই সংবাদের প্রতিবাদ জানায় দোহা। তুরস্কের সহযোগিতায় কাতারের আমিরের বিরুদ্ধে সামরিক অভ্যুত্থান প্রচেষ্টা প্রতিহত করা হয়েছে বলে যে খবর বেরিয়েছে তা নাকচ করে দিয়ে দোহা এক বিবৃতিতে বলেছে, তুর্কি পত্রিকার ওই খবর বাস্তবতা বিবর্জিত। তবে দোহার বিরুদ্ধে পারস্য উপসাগরীয় দেশগুলোর সামরিক উত্তেজনা সৃষ্টির প্রচেষ্টা প্রতিহত করতে তুরস্ক ও কুয়েতের মতো বন্ধু রাষ্ট্রগুলো উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছে।

গত ৫ জুন সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন চারটি আরব দেশ সন্ত্রাসবাদের সমর্থনের অভিযোগ তুলে কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে। সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, মিশর ও বাহরাইন এর কয়েকদিন পর জল, স্থল ও আকাশপথে কাতারের ওপর অবরোধ আরোপ করে। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ