ঢাকা, বৃহস্পতিবার 4 January 2018, ২১ পৌষ ১৪২৪, ১৬ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

২০১৮ সাল হবে গণতন্ত্র মুক্তির বছর

খুলনা অফিস : ২০১৮ সাল হবে একদলীয় শাসনের অবসান ও গণতন্ত্র মুক্তির বছর। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার শিগগিরই আন্দোলনের ডাক দেবেন। সেই আন্দোলনে চূড়ান্ত বিজয় অর্জন না হওয়া পর্যন্ত ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ঘরে ফিরে যাবেনা। জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৩৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে খুলনায় জেলা ছাত্রদল আয়োজিত ছাত্র জমায়েতে নেতৃবৃন্দ এ কথা বলেন।
বক্তারা বলেন, ছাত্রদলের ইতিহাস গৌরবোজ্জল। সামরিক স্বৈরাচারের পতন সহ যে কোন আন্দোলনে এই দলের নেতাকর্মীরা অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। শেখ হাসিনার দুঃশাসন হঠাতে ছাত্রদল আবারও সেই ভূমিকায় অবতীর্ণ হবে।
বুধবার ৩ জানুয়ারি দুপুরে নগরীর কে ডি ঘোষ রোডে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হয় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কর্মসূচি। এর আগে নগরীতে বর্ণাঢ্য র‌্যালির প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। হাজার হাজার নেতাকর্মীর পদচারনায় মুখর হয়ে ওঠে অনুষ্ঠানস্থল। ব্যান্ডের তালে তালে ‘প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ, জীবন বাংলাদেশ আমার মরণ বাংলাদেশ-গানের সুরে সুরে করকতালির মধ্য দিয়ে বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি আলমগীর হাসান সোহান।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা জেলা বিএনপির সভাপতি এডভোকেট এস এম শফিকুল আলম মনা। প্রধান বক্তা ছিলেন ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ। জেলা ছাত্রদল সভাপতি আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা তুহিনের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম মনিরুল হাসান বাপ্পী, কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি আবু আতিক আল হাসান মিন্টু, সহ সভাপতি রফিকুল ইসলাম রফিক, জেলা যুবদল সভাপতি এস এম শামীম কবীর, কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি রবিউল ইসলাম, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ইবাদুল হক রুবায়েদ, কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিনুর ওয়াহিদ বাবু, সহ-প্রকাশনা সম্পাদক পার্থ দেব মন্ডল, কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক কামরান হাসান, নগর ছাত্রদলের সভাপতি শরিফুল ইসলাম বাবু ও সাধারণ সম্পাদক হেলাল আহম্মেদ সুমন। মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন কচুয়া থানা বিএনপি নেতা আসাদুল ইসলাম পান্না, কেন্দ্রীয় সদস্য ওমর ফারুক, চারুকলা কলেজের যুগ্ম সম্পাদক মোখলেসুর রহমান, আইএইচটির সহ-সভাপতি আসাদ শিকদার, ঢাকা মহানগর ছাত্রদল সদস্য মো. আল ইমন প্রমুখ। কমৃর্সূচিকে ঘিরে খুলনা জেলার নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়। সকাল থেকে বিভিন্ন থানা থেকে বিশাল বিশাল মিছিল নগরীতে এসে পৌঁছায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ