ঢাকা, শুক্রবার 5 January 2018, ২২ পৌষ ১৪২৪, ১৭ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

নতুন বছর নতুন বই

আবুল খায়ের নাঈমুদ্দীন : নববর্ষের আমেজটা ছোট্ট  সোনামনিদের কাছে আনন্দের। ঈদে আসে নতুন নতুন কড়মড়ে রং বেরংয়ের জামা কাপড়। আর নববর্ষে আসে কড়মড়ে মলাটের নতুন নতুন বই। নতুন বইয়ের আনন্দে শিশুরা মেতে ওঠে নতুন উদ্যোমে। 

প্রত্যেকবার নববর্ষের সাথে হয়তো শীত, না হয় ঈদ, না হয় নবান্ন উৎসব। একটা কিছু লেগেই থাকে। তাতে নববর্ষের আনন্দটা বেড়ে যায়। এবার শীতের পুরো আমেজটা পাওয়া গেলো।

শীতে হরেক রকম পীঠা খাওয়া যায়। খেজুরের রসের গরম গরম শিন্নির মজাই আলাদা। তাছাড়া রস দিয়ে গ্রামের নানান রকম পিঠা বানিয়ে দেয়। অনেক পিঠা এখন স্কুলের টিফিন হিসাবেও চলে। ভাঁপা পিঠা, গোটা পিঠা, লাড্ডু পিঠা আরো কতো কি!

তাছাড়া শীতে মোটা কাপড়ের সুন্দর সুন্দর জামা গায়ে থাকে।  সবাইকে ভদ্র ভদ্র লাগে। ভোর গড়িয়ে সকাল হলে লেপ কাঁথা কম্বল ছেড়ে বের হতে মন চায় না। কম্বল থেকে বের হয়ে ঠান্ডা পানির ব্যবহার খুব মজাদায়ক। উহ! আহ! কি শব্দ? ঘুম থেকে ওঠে অযু করতে গিয়ে হা করে মুখ থেকে বাতাস বের করে ধোঁয়ার মতো সাদা কুয়াশা দেখা যায়। কে কত বেশি কুয়াশা দেখাতে পারে। তাতেও বেশ মজা করতে পারি। নামায শেষে মসজিদ থেকে বের হলে একজন আরেক জনের মাফলারটা নিয়ে দেয় দৌড়। দৌড়ের ফলে শীতের ভয়টা একটু কমে।

খোকার কল্পনা কেমন হয় ছন্দে ছন্দে কল্পনা করা যায়-

হিম হিম শীতে,/

জিম জিম ভীতে/ 

মুখের সঙ্গীতে/ 

মন ভরপুর,

একটু ভাল্ লাগে/

সকাল সকাল ভাগে

মোটকু খোকা জাগে /

ঠিক ভর দুপুর।

উঠলে শীতের ভয়,

উঠিস না যা কিছু হয়।

উঠিস না শীতে 

গা কাঁপে ভীতে,

উঠলে নামায পড়!

ব্রাশটা শেষ কর!

তাড়াতাড়ি পড়তে বস!

নোয়া-গাড়ি আসছে নিতে।

শুনতে হবে সব

তাই থাকি নীরব।।

শীতকালে খেলাধূলাও বেশ জমে। প্রায় সব খেলার উপযোগী সময় শীতকাল। সব মিলে শীতের আমেজই আলাদা। পড়ার সময় কাঁথা কম্বল গায়ে জড়িয়ে বসা। শুধু মুখ চোখ দেখা যায়। বাহ কি মজা! ঘুমের সময় পায়ের সাথে কম্বলের নিচে পুশি বিড়ালটাও চোখ বন্ধ করে ঘুমুচ্ছে। হঠাৎ পায়ের সাথে লেগে চিৎকার! মা এখানে নরম কি? পায়ের সাথে লাগে। তারপর কম্বল ফেললে বেরিয়ে এলো চোখ বন্ধ করা এক বিড়াল। বিড়াল নাকি শিশুদের কম্বলের নিচেই ঘুমাতে পছন্দ করে। 

ছয় ঋতুর নমুনাও এখন হারিয়ে যাচ্ছে। ঋতুর রাজা শীত সবার পছন্দ। শীতটা যদি সারা জীবনই থাকতো। কি মজাই না হতো। নতুন বই হাতে পেয়ে নতুন জামা পরে নতুন শ্রেণীতে উঠে বেশ মজা । তারাও ভাবে যদি সব দিন টাই নওরোজ বা নববর্ষ হতো!

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ