ঢাকা, শনিবার 6 January 2018, ২৩ পৌষ ১৪২৪, ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ বন্ধ ঘোষণা

কুমিল্লা অফিস : কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১৫ ছাত্র আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আগামী ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত কলেজ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষের নির্দেশে শুক্রবার ভোর থেকে শিক্ষার্থীরা হল ত্যাগ করেছেন।
বৃহস্পতিবার গভীর রাতে কলেজ হোস্টেলে দফায় দফায় এ সংঘর্ষের  ঘটনা ঘটে। ঘটনা তদন্তের  কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. জাহাঙ্গীর হোসেনকে প্রধান করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ঘটনায় ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
জানা যায়, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত আড়াইটায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের আবদুল হান্নান ও হাবিবুর রহমান পলাশ গ্রুপের নেতাকর্মীরা সশস্ত্র অবস্থায় আবাসিক হোস্টেলে সংঘর্ষে জড়ান এ সময় দফায় দফায় চলা ওই সংঘর্ষে অন্তত ১৫ জন ছাত্র আহত হন। এদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তৌফিক ও ইফরান নামের দুই ছাত্রকে ঢামেকে ভর্তি করা হয়েছে। অপর আহতদের কুমেক ও নগরীর বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
শুক্রবার দুপুরে মুঠোফোনে কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. মো. মহসিন উজ-জামান জানান, গভীর রাতে ছাত্ররা সংঘর্ষে লিপ্ত হলে কিছু ছাত্র আহত হয়েছে। আহতদের ঢাকা ও কুমিল্লায় চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
কোতয়ালি মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. সালাহ উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে রাতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ