ঢাকা, শনিবার 6 January 2018, ২৩ পৌষ ১৪২৪, ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পতেঙ্গা মাদরাসার সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন

পতেঙ্গা ইসলামীয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদরাসার নব নিযুক্ত অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা আবু সালেহ মুহাম্মদ ছলীমুল্লাহ এর অভিষেক অনুষ্ঠান এবং সদ্য বিদায়ী অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা জানে আলম, শিক্ষক  মাওলানা রমিজ আহমদ, মাওলানা আকবর আহমদ চৌধূরী, ও আলহাজ্ব মাওলানা ইলিয়াছ হুজুর এর বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠান গত সোমবার ২৭ নভেম্বর ১৭ তারিখে মাদরাসার অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। এতে মাদরাসার আরবী প্রভাষক আলহাজ্ব মাওলানা সেলিম জাহাঙ্গীর এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন নব নিযুক্ত অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলামা আবু সালেহ মুহাম্মদ ছলীমুল্লাহ। তিনি বলেন মাদ্রাসার যে লক্ষ্য "আল্লাহর কালিমায় সর্বোচ্চ" তা প্রতিষ্ঠা করার সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা অভ্যাহত থাকবে এবং সকল শিক্ষক- কর্মচারীদের সহযোগিতায় শিক্ষার জন্যে পংকপালের মত দূরদূরান্ত থেকে ছুটে আসা সকল শিক্ষার্থীর জীবনের সফলতা অর্জনের সঠিক পদ্ধতি গ্রহণ করবো। বর্তমান অধ্যক্ষ সদ্য বিদায়ী অধ্যক্ষ ও শিক্ষকম-লীর শারীরিক সুস্থতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন এবং নিজ দায়িত্ব পালনে দেশবাসী ও সহপাঠীদের নিকট দোয়া প্রার্থনা করেন। স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন সদ্য বিদায়ী অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা জানে আলম, আলহাজ্ব মাওলানা ইলিয়াছ সাহেব, মাওলানা রমিজ আহমদ, মাওলানা আকবর আহমদ চৌধুরী। সদ্য বিদায়ী অধ্যক্ষ বলেন এই মাদরাসার সার্বিক উন্নয়নে আমার আন্তরিক চেষ্টা- প্রচেষ্টা ছিল, কতটুকু সফল হয়েছি আল্লাহই মালুম। আমি সকল শিক্ষক মন্ডলীর সার্বিক সহযোগিতা পেয়েছি তার জন্য সকলের নিকট আমি কৃতজ্ঞ। আলহাজ্ব জানে আলম আরো বলেন এই দীনি ময়দানে দীনের অগণিত খাদেম তৈরি হয়েছে সামনেও হবে আমি  এই আশা আকাক্সক্ষা ব্যক্ত করছি। এতে আরো বক্তব্য রাখেন মাদরাসা পরিচালনা পর্ষদ এর সহ সভাপতি মাওলানা হোসাইন আহমদ, অন্যতম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোজাহেরুল আলম, সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাওলানা শফিকুর রহমান, অধ্যাপক জাকের হোসাইন, সহকারী অধ্যাপক ড. আব্দুল মোত্তালেব, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক মাহমুদুল হাসান, ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মিজানুর রহমান, সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মুসলিম মিয়া স্যার। অধ্যাপক মাহমুদুল হাসান বলেন হজরত আবু বকর (রাঃ) খলিফা নির্বাচিত হওয়ার পর হজরত ওমর (রাঃ) কে বললেন হে ওমর তুমি আমাকে কেমন সহযোগিতা করবে? জবাবে তিনি বললেন হে আমিরুল মুমিনিন আল্লাহর ডাক আসার আগ মুহূর্তেও আপনার ডাকে সাড়া দিবো। সুতরাং এটাই হোক আমি ও আমাদের আজকের আমল। হোসাইন আহমদ বলেন তথা কথিত মোল্লা তৈরী করার জন্যে এই মাদরাসা প্রতিষ্ঠা করা হয় নি, এখান থেকে দ্বীনের দায়ী ও মোজাহিদ তৈরী হওয়াই মুখ্য উদ্দেশ্য।
যাদের জীবনের শ্লোগান হবে আল্লাহর জমিনে আল্লাহর হুকুমাত প্রতিষ্ঠা করার শ্লোগান। শিক্ষকদের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন দাখিল বিভাগের প্রধান মাওলানা মামুনুর রশীদ, মাওলানা মোঃ নুরুল্লাহ, আব্দুর রউফ স্যার, আলহাজ্ব নুরুল আমিন, মাওলানা তোফাজ্জল হোসাইন। উক্ত অভিষেক ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতির  বক্তব্য রাখেন মাদরাসা পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মাওলানা এ কে এম ইউছুফ। অনুষ্ঠানে মনোজ্ঞ  সাংস্কৃতিক পরিবেশন করে সৈকত সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংসদ এর শিল্পীবৃন্দ। এতে আরো উপস্থিত অত্র মাদ্রাসা পরিচালনা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব লেয়াকত আলী, এ এইচ এম বখতিয়ার, ইব্রাহীম কোম্পানি, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফসিউল আলম প্রমুখ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদ ও সমাজ সেবক এইচ এম মহিউদ্দীন খালেদ মুন্না, যয়নুল উলুম দাখিল মাদরাসার সুপারিন্টেনডেন্ট মাওলানা ইউছুফ, খিজির (আঃ) জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মাওলানা মাহমুদুল ইসলাম।
প্রাক্তন ছাত্রদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এড. ইউছুফ, তাওহীদুল ইসলাম, আব্দুর রশিদ, খোরশেদ আলম, হাফেজ মাহমুদুল হক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বেলাল আহমদ, এবং অত্র মাদরাসার শিক্ষক মন্ডলী ও কর্মচারীবৃন্দ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ