ঢাকা, মঙ্গলবার 9 January 2018, ২৬ পৌষ ১৪২৪, ২১ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

অধিনায়ক আস্থা রেখেছে বলে আমি জাতীয় দলে -মিথুন

স্পোর্টস রিপোর্টার : ত্রিদেশীয় সিরিজে মোহাম্মদ মিঠুন প্রথম দুই ওয়ানডের জন্য দলে জায়গা পেয়েছেন। এবারের সুযোগটা তাকে করে দিয়েছেন ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। বিপিএলে মাশরাফির দলে খেলেছিলেন মিঠুন। রংপুর রাইডার্সকে চ্যাম্পিয়ন করাতে বড় অবদান মিঠুনের। ক্রিস গেইল ও ব্রেন্ডন ম্যাককালামরা যখন দলকে জেতাতে পারছিলেন না তখন মিঠুন ছিলেন একমাত্র ভরসা। 

এজন্য তাকে প্রশংসাও শুনতে হয়েছিল। গেইল-ম্যাকালাম ও সর্বোপরি মাশরাফির তাকে বলেছিলেন ,‘তুমি ভালো  খেললে আমরা ম্যাচ জিতব, না হলে জিতব না।’অনুপ্রেরণামূলক কথা শুনে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন মিঠুন। তিনি বলেন,‘ক্রিস গেইল, ম্যাককালাম কিংবা মাশরাফি ভাইয়ের মতো খেলোয়াড়রা যখন প্রশংসা করে তখন আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায়, নিজেকে নিয়ে গর্ব হয়।’ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফিকে নিয়ে আলাদা করে মিঠুন বলেন, ‘আমি ভাগ্যবান যে আমার দলের যিনি অধিনায়ক ছিলেন তিনি বাংলাদেশ দলেরও অধিনায়ক। উনি আমার উপরে আস্থা রেখেছেন। উনি আমার উপরে আস্থা রেখেছেন বলেই আমি এখানে। উনি আস্থা না রাখলে আমি এখানে থাকতে পারতাম না।’  ফেরার মঞ্চ হিসেবে বিপিএলকে বেছে নিয়েছিলেন তিনি। তাই বড় মঞ্চে পারফর্ম করে তৃপ্ত মিঠুন। এবার তার লক্ষ্যটা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। তিনি বলেন, ‘বিপিএলের পারফরম্যান্স পুরোটাই সাহায্য করেছে। কারণ ওখানে আমার অবদান ছিল। পাশাপাশি আমাদের টিম চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। আমি যা করেছি তার থেকেও আরও ভালো করার সুযোগ আছে। প্রথম টার্গেট বাংলাদেশের হয়ে ভালো খেলার, কিছু করার। আমার দিক থেকে শতভাগ চেষ্টা থাকবে যে দেশের হয়ে কিছু যেন করতে পারি। দেশের হয়ে যদি একটা ম্যাচ জেতাতে পারি তাহলে এর  থেকে ভালো কিছু আর হতে পারে না।’ মাশরাফির আস্থা অর্জনের পর নির্বাচকদের আস্থাও পেয়েছেন মিঠুন। এবার ২২ গজের ক্রিজে ডানহাতি এ ব্যাটসম্যানের নিংড়ে দেওয়ার পালা। ২টি ওয়ানডে ও ১২টি টি-টোয়েন্টি খেলে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়েছিলেন মোহাম্মদ মিঠুন। আরও ভেঙে বললে, ২ ওয়ানডেতে ভালো করতে না পারায় দল থেকে বাদ পড়েছিলেন। পরবর্তীতে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের ইচ্ছায় জাতীয় দলের দরজা খুলে মিঠুনের। সেটাও টি-টোয়েন্টির বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান হিসেবে। লাল-সবুজকে বিশ্বমঞ্চে প্রতিনিধিত্বের সুযোগ পেলেও সেটা বড় করতে পারেননি পারফরম্যান্সের কারণে। এবার আবার এসেছে সুযোগ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ