ঢাকা, বুধবার 10 January 2018, ২৭ পৌষ ১৪২৪, ২২ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলী উদ্ধার সুন্দরবনে বন্দুকযুদ্ধে বনদস্যু ফরিদ নিহত

খুলনা অফিস : সুন্দরবনে নৌপুলিশের সঙ্গে কথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বনদস্যু ছোট বাহিনীর সদস্য ফরিদ (৩৮) নিহত হয়েছে। এ সময় তার কাছ থেকে দু’টি দেশে তৈরি বন্দুক ও দু’টি গুলী উদ্ধার করা হয়েছে। নৌপুলিশ নিহত ফরিদকে সুন্দরবনের বনদস্যু ছোট বাহিনীর সক্রিয় সদস্য বলে দাবি করেছে। মঙ্গলবার ভোরে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের শ্যালা নদীতে কথিত এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনাটি ঘটেছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।  শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবিরুল ইসলাম বলেন, ‘সুন্দরবনের নদী-খালে মাছ শিকারে যাওয়া জেলে নৌকায় বনদস্যুরা ডাকাতি করছে-এমন সংবাদের ভিত্তিতে নৌপুলিশের একটি দল শ্যালা নদীতে অভিযানে যায়। এ সময় বনদস্যুরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলী ছুঁড়তে শুরু করে। নৌপুলিশও পাল্টা গুলী চালায়। বেশ কয়েক মিনিট গুলীবিনিময়ের পর বনদস্যুরা পিছু হটলে পুলিশ সেখানে তল্লাশি চালিয়ে একজনের গুলীবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করে। ঘটনাস্থল থেকে দু’টি একনলা বন্দুক ও দু’টি গুলী উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে শ্যালা নদীতে মাছ ধরতে আসরা জেলেরা নিহত ব্যক্তিকে ফরিদ বলে শনাক্ত করে। জেলেরা জানায়, নিহত ফরিদ বনদস্যু ছোট বাহিনীর সক্রিয় সদস্য। ওসি কবিরুল ইসলাম আরো জানান, সম্প্রতি ‘ছোট’ নামের এক ব্যক্তি বনদস্যু বাহিনী গড়ে তুলে সুন্দরবনের জেলে, বাওয়ালি ও মৌয়ালদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মুক্তিপণ আদায় করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ব্যাপারে শরণখোলা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ