ঢাকা, বুধবার 10 January 2018, ২৭ পৌষ ১৪২৪, ২২ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে দেশে প্রতি ৭ জনে একজন স্থানচ্যুত হবে -বন ও পরিবেশ মন্ত্রী

সংসদ রিপোর্টার : জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সৃষ্ট প্রাকৃতিক দুর্যোগের সর্বোচ্চ ঝুঁকির সূচকে বাংলাদেশ ৬ নম্বরে রয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ২০৫০ সাল নাগাদ দেশে প্রতি ৭ জনের মধ্যে একজন স্থানচ্যুত হবে।’ গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে প্রশ্ন-উত্তর পর্বে ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি তথ্য জানান। বনমন্ত্রী বলেন, ‘আইপিসিসি‘র ৫ম প্রতিবেদন অনুযায়ী গত ১০০ বছরে সমুদ্রপৃষ্ঠের গড় উচ্চতা প্রায় ১৭ থেকে ২১ সেন্টিমিটার বেড়েছে। আগামী ২০৮১-২১০০ সালের মধ্যে সমুদ্রপৃষ্ঠের গড় উচ্চতা ২৬-৯৮ সেন্টিমিটার বাড়তে পারে।’
জেনেভাভিত্তিক দ্য ইন্টারন্যাশনাল ডিসপ্লেসমেন্ট মনিটরিং সেন্টার (আইডিএমসি)র প্রতিবেদনের কথা উল্লেখ করে বনমন্ত্রী বলেন, ‘দুর্যোগের কারণে ২০০৮ ও ২০১৪ সালের মধ্যে বাংলাদেশের প্রায় ৪ দশমিক ৭ মিলিয়নেরও বেশি লোক স্থানচ্যুত হয়েছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘অ্যাসেসমেন্ট অব সি লেভেল রাইজ অন বাংলাদেশ কোস্ট থ্রু ট্রেন্ড অ্যানালাইসিস অনুযায়ী প্রতিবছর বাংলাদেশের সমুদ্রপৃষ্ঠার উচ্চতা প্রতিবছর ২১ মিলি মিটার বাড়ছে। সমুদ্রপৃষ্ঠার উচ্চতা এক মিটার বাড়লে বাংলাদেশের বিস্তীর্ণ উপকূল এবং নিম্নাঞ্চলসহ প্রায় এক পঞ্চমাংশ এলাকা সমুদ্রে তলিয়ে যেতে পারে। এতে উপকূলীয় অঞ্চলের ১৯ জেলার ৭০ উপজেলার প্রায় ৪ কোটি লোক জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে প্রত্যক্ষভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে। এই জনগোষ্ঠীর বড় একটি অংশ বাস্তুচ্যুত হওয়ার ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।’
আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইনের প্রশ্নের জবাবে আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, ‘সামাজিক বনায়নের আওতায় ১৯৮১-৮২ অর্থবছর থেকে ২০১৬-১৭ অর্থবছর পর্যন্ত ৮৪ হাজার ৩৭৮ হেক্টর এবং ৬৮ হাজার ৮৩০ কিলোমিটার বাগান সৃজন করা হয়েছে। সৃজিত বাগানে ৬ লাখ ৫২ হাজার ৯৫৫ জন উপকারভোগী সম্পৃক্ত রয়েছে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ