ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 January 2018, ২৮ পৌষ ১৪২৪, ২৩ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দিলেন বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীও

গতকাল বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরামের উদ্যোগে বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয় -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : এবার কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছেন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও কর্মচারীরা। গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের নানা কর্মসূচি পালনের মধ্যে দিয়ে দুই দিনের অবস্থান কর্মসূচি এবং পরে অনশন শুরু করবেন বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়। বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারী ফোরামের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম দৈনিক সংগ্রামকে জানান, গতকাল তারা বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে গিয়েছি। পরে বিকেলে তারা জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আলোচনা সভা এবং দোয়া ও মোনাজাতের আয়োজন করে। এরপর তারা অবস্থান কর্মসূচি শুরু করে। তিনি আরও জানান, আজ ১১ জানুয়ারি এবং আগামীকাল ১২ জানুয়ারি অবস্থান কর্মসূচি পালন করবো। এরপর যদি দাবি মেনে না নেয়া হয় তাহলে ১৪ তারিখ থেকে আমরণ অনশনে যাবেন তারা।
গতকাল বুধবার দুপুর ১২টা থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে শিক্ষকদের অবস্থান নিতে দেখা গেছে। তাদের এই অবস্থান অনির্দিষ্টকালের জন্য বলে জানিয়েছেন ফোরামের নেতারা। ঢাকাসহ সারাদেশ থেকে শিক্ষকরা এতে অংশ নিতে ঢাকায় আসছেন।
বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী ফোরাম, বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (নজরুল), বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (শাহ আলম-জসিম), জাতীয় শিক্ষক পরিষদ বাংলাদেশ, বাংলাদেশ শিক্ষক ইউনিয়ন মিলে গঠন করা হয়েছে বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরাম।
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি নজরুল ইসলাম রনি জানান, বেসরকারি শিক্ষাকে জাতীয়করণ করা আমাদের একমাত্র দাবি। গত ৫০ বছর ধরে এই বিষয়টি ঝুলে আছে। শিক্ষার মান উন্নয়নে জাতীয়করণের বিকল্প নেই।
রনি আরও জানান, আমাদের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অবস্থান নেয়ার কথা থাকলেও নিরাপত্তাজনিত কারণে আমাদের বসতে দেয়া হয়নি। তাই আমরা এখানে চলে এসেছি। ঘোষণা না আসা পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাবো। দাবি আদায় না হলে আমরণ অনশন করে দাবি আদায় করা হবে বলে জানান সংগঠনের নেতারা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ