ঢাকা, রোববার 14 January 2018, ১ মাঘ ১৪২৪, ২৬ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

স্বদেশের কোচ হওয়া অনেক বড় ব্যাপার -হিথ স্টিক

স্পোর্টস রিপোর্টার : টাইগারদের বিদায় জানিয়ে নিজ দেশ শ্রীলংকার কোচের দায়িত্ব নিয়েছেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। অথচ বাংলাদেশের সঙ্গে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের চুক্তি ছিল ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত। দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষে পদত্যাগ করা হাথুরুসিংহের সিদ্ধান্তে বাংলাদেশের অনেকেই ক্ষুব্ধ। তবে হিথ স্ট্রিক সে দলে নেই। তিনি পক্ষ নিলেন হাথুরুসিংহেরই।

বাংলাদেশের সাবেকবোলিং কোচ স্ট্রিক এখন জিম্বাবুয়ে দলের প্রধান  কোচের দায়িত্বে। ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে ঢাকায় আসা স্ট্রিকের সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই উঠলো হাথুরুসিংহে প্রসঙ্গ। তবে শ্রীলংকার বর্তমান কোচের পাশেই দাঁড়ালেন জিম্বাবুয়ের সাবেক অধিনায়ক। তিনি বলেন,‘হাথুরুসিংহে এখন শ্রীলংকার কোচ। স্বদেশের  কোচ হওয়া সব সময় অনেক বড় ব্যাপার। আমি নিশ্চিত, কোনও বাংলাদেশি কোচ দেশ আর বিদেশ থেকে প্রস্তাব পেলে তিনি দেশের ডাকেই সাড়া দেবেন সবার আগে।’ হাথুরুসিংহের সিদ্ধান্তের পক্ষ নিয়ে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের সঙ্গে তিন বছরের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন হাথুরুসিংহে। তবে নিজের পরিবারকে সময় দেওয়ার পাশাপাশি স্বদেশের হয়ে কাজ করার আকাক্সক্ষাই হয়তো এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য করেছে তাকে।  দেশের হয়ে কাজ করার চেয়ে মর্যাদার আর কিছু হতে পারে না। প্রত্যেক ক্রিকেট কোচ স্বদেশের হয়ে কাজ করতে চায়।’ হাথুরুসিংহের কোচিংয়ে বাংলাদেশ অনেক সাফল্য  পেয়েছে। ঘরের মাঠে ভারত-পাকিস্তান-দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে, অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড-শ্রীলংকাকে হারিয়েছে টেস্টে। স্ট্রিকের ধারণা, এত অর্জনের কারণে হাথুরুসিংহেকে মনে রাখবে বাংলাদেশের মানুষ, ‘আমি মনে করি চন্ডিকা বাংলাদেশের জন্য দারুণ কাজ করেছেন। তার কোচিংয়ে আসা সাফল্য বাংলাদেশের মানুষ কখনোই ভুলবে না।’ দুই বছর বাংলাদেশের বোলিং কোচের দায়িত্বে থাকা স্ট্রিক ২০১৬ সালের অক্টোবর থেকে জিম্বাবুয়ের কোচ। প্রায় দেড় বছর পর বাংলাদেশে ফিরে তিনি কিছুটা আবেগাক্রান্ত। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে ফিরে খুব ভালো লাগছে। এখানে প্রায় দুই বছর ছিলাম। মনে হচ্ছে, নিজের বাড়িতে ফিরলাম!’ অবশ্য দুই বছরের মাথায় তিনি বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি নিয়ে চলে যান। ২০১৬ সালের অক্টোবরে নিজ দেশ জিম্বাবুয়ের কোচের দায়িত্ব নেন হিথ স্ট্রিক। জিম্বাবুয়ে দলের সঙ্গে আবার বাংলাদেশে এসেছেন তিনি। গতকাল মিরপুরে তিনি মাশরাফি, তাসকিন, মুস্তাফিজকে তার ভালো বন্ধু বলে উল্লেখ করেন। হিথ স্ট্রিক বলেন,‘এখানে আবার আসতে পেরে ভালো লাগছে। ঘর থেকে আরেক ঘরে আসলাম। খুব বেশিদিন হয়নি যে এখানে আমি দুই বছর দায়িত্ব পালন করে গিয়েছি। মনে হচ্ছে এইতো সেদিন এখানে ছিলাম আমি। বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে এসেছি। বাংলাদেশ দলে আমার ভালো বন্ধু হল মাশরাফি, তাসকিন ও মুস্তাফিজ। আমার কোচিং ক্যারিয়ারে রুবেলের সঙ্গেও অনেক সময় কাটিয়েছি। আমি চলে যাওয়ার পর তারা কে কী রকম করছে সে বিষয়টি লক্ষ্য রেখেছি।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ