ঢাকা, রোববার 14 January 2018, ১ মাঘ ১৪২৪, ২৬ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ক্রীড়াঙ্গনের শিক্ষাকে জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে চর্চা করতে হবে -জনপ্রশাসন সচিব

খুলনা অফিস : জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো. মোজাম্মেল হক খান বলেছেন, ক্রীড়াকে কেবল প্রতিযোগিতা হিসেবে দেখলে চলবে না, ক্রীড়াঙ্গনের শিক্ষাকে বাস্তব জীবনে চর্চা করতে হবে। তিনি গতকাল শনিবার সকালে খুলনা জিলা স্কুল মাঠে ৩০তম বিভাগীয় বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০১৮ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। খুলনা বিভাগীয় প্রশাসন এবং বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড খুলনা যৌথভাবে এই ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।
প্রধান অতিথি তার উদ্বোধনী বক্তৃতায় বলেন, জীবনটা হচ্ছে একটা ক্রমাগত অনুশীলন। ক্রীড়াঙ্গনে সফলতা পাওয়ার জন্য যেমন আত্মবিশ্বাস ও অধ্যবসায় জরুরি, তেমনি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে সফলতার জন্য এই অনুশীলন অপরিহার্য। ক্রীড়া শারীরিক সুস্থতার পাশাপাশি আমাদেরকে শৃঙ্খলাবোধ ও পারস্পরিক সমন্বয়  এর শিক্ষা দেয়। জাতীয় জীবনে এই শৃঙ্খলাবোধ ও সুষ্ঠু সমন্বয় খুবই প্রয়োজন। বর্তমান সরকার ভিশন ২০২১ এবং ভিশন ২০৪১ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। নতুন প্রজন্মকেই সেই ভিশন বাস্তবায়নে নেতৃত্ব দিতে হবে।
বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই ক্রীড়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যান বোর্ডের মহাপরিচালক মো. আসাদুল ইসলাম, ভূমি আপীল বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আবদুল হান্নান, কেএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুব হাকিম এবং অতিরিক্ত ডিআইজি মো. হাবিবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া খুলনা বিভাগের ১০ জেলার জেলা প্রশাসকসহ সরকারি বিভিন্ন দফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ১০ জেলা থেকে আগত ক্রীড়াবিদ এবং তাদের অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, বিভাগীয় এই ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় খুলনা বিভাগীয় সদর এবং ১০টি জেলার সরকারি দফতরসমূহে কর্মরত কর্মকর্তা/ কর্মচারীদের ছেলেমেয়েদের নিয়ে গঠিত ১১টি দলে মোট ২৯৭ জন প্রতিযোগী  ৩৩টি ইভেন্টে অংশগ্রহণ করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ