ঢাকা, রোববার 14 January 2018, ১ মাঘ ১৪২৪, ২৬ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

শৈত্যপ্রবাহে রংপুর অঞ্চলের আলু ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি

মোহাম্মদ নুরুজ্জামান, রংপুর : রংপুর অঞ্চলের বিভিন্ন এলাকায় আলু ক্ষেতে লেড ব্লাইড রোগ  আক্রমণ করেছে।
 কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে এ রোগ মহামারি আকার ধারণ করলে আলু উৎপাদনে মারাত্মকভাবে ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। অব্যাহত শৈত্যপ্রবাহে মেঘলা আকাশ, ঘন কুয়াশা ও হিমেল হাওয়ার কারণে বিরূপ আবহাওয়ার কারণে এ রোগের প্রাদুর্ভাব ঘটেছে বলে সূত্র জানিয়েছে। ছত্রাক নাশক ওষুধ ব্যবহারে এ  রোগটি সম্পূর্ণরূপে দমন করা সম্ভব।
কৃষি বিভাগ জানিয়েছে গত বুধবার  পর্যন্ত রংপুর অঞ্চলে প্রায় ৩০ হেক্টর জমির আলু ক্ষেতে লেড ব্লাইড রোগ  দেখা দিয়েছে। এর মধ্যে রংপুর সদর, বদরগঞ্জ, কাউনিয়ায়, নীলফামারী সদর, কিশোরগঞ্জ ও জলঢাকা ডোমার এলাকায় সবচেয়ে বেশি এ রোগ দেখা দিয়েছে।  কৃষি বিভাগের কর্মকর্তাগণ জানিয়েছেন দু’একদিনের মধ্যে আবহাওয়ার উন্নতি না হলে তা মহামারি আকারে দেখা দিতে পারে। এ রোগ দমনে কৃষকদের আলু ক্ষেতে ছত্রাক নাশক ওষুধ ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন। 
রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার টেপামধুপুর ইউনিয়নের চর রাজিবপুর এলাকার  কৃষক মহুবার রহমান জানান, ৫ বিঘা জমিতে আলু লাগিয়েছিলেন। জমিতে লেড ব্লাইড রোগ দেখা দেয়ায় ছত্রাক নাশক ওষুধ ছিটিয়েও কোন ফল হচ্ছে না। চড় আজম খাঁ এলাকার কৃষক লোকমান জানান, ৩ বিঘা জমিতে আলু লাগিয়েছিলেন জমিতে রোগ দেখা দেয়ায় ছত্রাক নাশক ওষুধ ছিটিয়েও কোন ফল হচ্ছে না। এতে করে তাদের ফলন কম হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। ফলন ভলো না হলে এবার তাদের লোকসান গুনতে হবে। রংপুর সদর উপজেলার পাগলাপীর এলাকার কৃষক আফতাব হোসেন জানান, বিরূপ আবহাওয়ার কারণে তার জমিতে লেড ব্লাইড রোগ  দেখা দিয়েছে। কৃষি বিভাগের পরামর্শে তিনি ছত্রাক নাশক ওষুধ ছিটিয়ে তা নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছেন। তার মতো ওই এলাকার অনেক কৃষকের আলুর জমিতে লেড ব্লাইড রোগ দেখা দিয়েছিল। এখন তা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে কিছু কিছু স্থানে আলু ক্ষেতে লেড ব্লাইড রোগ  নিয়ন্ত্রণে আসেনি বলে জানা গেছে।
রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার লতিবপুর এলাকর আলু চাষি জাভেদ মিয়া জানান আলু ক্ষেতের একটি বড় অংশ রোগাক্রান্ত হয়েছে। 
কৃষি বিশেষঞ্জগণের অভিমত, বিরূপ আবহাওয়ার কারণে সাধারণত আলু বীজ থেকে লেড ব্লাইড রোগ সৃষ্টি হয়। এজন্য আলু চাষিদের উচিৎ উন্নতজাতের আলুবীজ রোপন করা।
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র জানিয়েছে, চলতি মওসুমে রংপুর অঞ্চলে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ লাখ হেক্টর জমি।  এ পর্যন্ত চাষ করা হয়েছে প্রায় ৯৭ হাজার হেক্টও জমিতে। চাষ সফল হলে রংপুর অঞ্চলে এবারে প্রায় ২১ লাখ মেট্রিক টন আলু উৎপন্ন হবে বলে আশা করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ