ঢাকা, রোববার 14 January 2018, ১ মাঘ ১৪২৪, ২৬ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রূপগঞ্জে অপহরণের ৫ দিন পরও গৃহবধূকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে অপহরণের পাঁচদিন পরও সালমা খাতুন নামে গৃহবধূকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। গত ৬ জানুয়ারি শনিবার বিকেলে উপজেলার তারাব সুলতানবাগ এলাকা থেকে ওই গৃহবধূকে অপরণ করা হয়। গৃহবধূ সালমা খাতুন সুলতানবাগ এলাকার আব্দুল হকের মেয়ে।
আব্দুল হক জানান, গত ৩ বছর আগে তারাব পোড়াবাড়ি এলাকার শাহ আলমের ছেলে শাহাদাত হোসেনের সঙ্গে তার মেয়ে সালমা খাতুনের বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে সায়মন নামে এক সন্তান জন্ম হয়। মেয়ের জামাই শাহাদাত হোসেন স্থানীয় শবনম ভেজিটেবল ফেক্টরিতে চাকুরি করে আসছেন। শাহাদাত হোসেনের সঙ্গে মাহাবুব নামে আরো এক জন চাকুরি করে আসছেন। চাকুরি করার সুবাদে শাহাদাতের সঙ্গে মাহাবুবের সু-সম্পর্ক গড়ে উঠে। সু-সম্পর্কের কারণে শাহাদাত হোসেন বাড়িতে না থাকার সময়ে মাহাবুব বাড়িতে গিয়ে সালমা খাতুনকে কু-প্রস্তাবসহ বিভিন্ন প্রলোভন দেখাতো। এসবে রাজি না হওয়ায় সালমা খাতুনকে অপহরণসহ প্রাণনাশের হুমকি দিতো মাহাবুব। সালমা খাতুন বিষয়টি জামাই শাহাদাত হোসেনকে অবহিত করেন। এরপর শাহাদাত হোসেন বিষয়টি নিয়ে জিজ্ঞাস করলে মাহাবুব ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এ ধরনের হুমকি-ধামকির পর জামাই শাহাদাত হোসেন সালমা খাতুনকে বাপের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। গত ৬ জানুয়ারি শনিবার বিকেলে সালমা খাতুন বাপের বাড়ির উঠানে ঘুরাফেরা করছিলো। এ সময় মাহাবুবসহ অজ্ঞাত ৩ থেকে ৪ জন দুর্বৃত্ত এসে সালমা খাতুনকে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় আব্দুল হক বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার ৫ দিন পার হয়ে গেলেও সালমা খাতুনকে উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ।
এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। সালমা খাতুনকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ