ঢাকা, মঙ্গলবার 16 January 2018, ৩ মাঘ ১৪২৪, ২৮ রবিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ঢাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর ছাত্রলীগের হামলা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত ৭ সরকারি কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে গতকাল সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা অপরাজেয় বাংলার সামনে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ সমাবেশ করে -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। গতকাল সোমবার ভিসির অফিসের সামনে বৃত্তাকারে বসে শান্তিপূর্ণ অবস্থান করছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। একপর্যায়ে অভিনব কৌশলে তাদের উপর হামলা করে আন্দোলন প- করে দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের ভিসির অফিসের সামনে এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, কয়েকদিন ধরে সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় সাধারণ শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিয়েছিলেন ভিসি অফিসের সামনে। একপর্যায়ে সেখানে আসেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি আবিদ আল হাসান, সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্সসহ কেন্দ্রীয় ও হল শাখার নেতাকর্মীরা। পরে সোহাগ ও জাকির ভিসির অফিসে প্রবেশ করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় বিভিন্ন হলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। তারা শিক্ষার্থীদের দাবির ব্যাপারে ভিসির সঙ্গে কথা বলার জন্য শিক্ষার্থীদের পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল চাইলে শিক্ষার্থীরা তাতে অসম্মতি জানিয়ে ভিসিকে এসে তাদের সঙ্গে কথা বলার জন্য অনুরোধ করেন।
এক পর্যায়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আন্দোলনরতদের ঘিরে হামলায় চালায় বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এ সময় ছাত্রীদের উপরও হামলার ঘটনা ঘটে, সাংবাদিকরা এই দৃশ্যের ছবি নিতে গেলে ছাত্রলীগের কর্মীরা সাংবাদিকদের উপর হামলা করে। এ সময় তাদের ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ভাঙচুর করে।
এ বিষয়ে ভিসি অধ্যাপক আখতারুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের শিক্ষার্থীরাই এই বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকবে। এরপর থেকে অধিভুক্তদের কোনো কাজ এখানে করা হবে না। তাদের যেকোনো একটা কলেজে এই কাজ সম্পন্ন করা হবে। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কি কথা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন ছাত্রলীগের নেতারা এই আন্দোলনের পরিস্থিতি জানতে এসেছিলো।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ