ঢাকা, মঙ্গলবার 23 January 2018, ১০ মাঘ ১৪২৪, ৫ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে সরস্বতী পূজা উদযাপিত

স্টাফ রিপোর্টার : ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে গতকাল সোমবার হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব বাণী অর্চনা, বিদ্যার দেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা উদযাপিত হয়েছে। বিদ্যাদেবীর কৃপালাভের আশায় রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে এই পূজা উদযাপিত হয়। মন্দির ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে পূজা ছাড়াও অন্য অনুষ্ঠানমালায় ছিল পুষ্পাঞ্জলি প্রদান, প্রসাদ বিতরণ, ধর্মীয় আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, সন্ধ্যা আরতি এবং আলোকসজ্জা। এছাড়াও বিদ্যার এই দেবীকে স্মরণ করেছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ক্লাবের হিন্দু ধর্মীয় শিক্ষার্থীরা। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম এ প্রধান উৎসবকে ঘিরে দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্যাম্পাসজুড়ে ছিল ধর্মীয় আমেজ। রাজহাঁসে বসে বিদ্যা ও জ্ঞানদাত্রী দেবী আসেন এ দিনেই। প্রতিবছর মাঘ মাসের শুক্ল পক্ষের পঞ্চমী তিথিতে শ্বেতশুভ্র কল্যাণময়ী বিদ্যাদেবীর আবাহন করা হয়। ঢাক-ঢোল-কাঁসর আর শঙ্খধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠে বিভিন্ন পূজা মন্ডপ। সরস্বতী বিদ্যার ও ললিতকলার অধিষ্ঠাত্রী দেবী হিসেবে পুজিত হন। ঐশ্বর্যদায়িনী, বুদ্ধিদায়িনী, জ্ঞানদায়িনী, সিদ্ধিদায়িনী, মোক্ষদায়িনী এবং শক্তির আধার হিসেবে সরস্বতী দেবীর আরাধনা করা হয়। প্রতি বছরের মতো এবারো পূজার মূল আকর্ষণ ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হল এবং চারুকলা ইনস্টিটিউট। এ বছর হলের মাঠে পৃথকভাবে বিভিন্ন বিভাগের মোট ৬৫টি মন্ডপে পূজার আয়োজন করা হয়। মন্ডপগুলোর প্রতিটি প্রতিমা তৈরিতেই ছিল ভিন্নতা। সকাল সোয়া ৯টায় জগন্নাথ হল মন্দিরে শ্বেতশুভ্র বসনা জ্ঞানদায়িনী দেবী সরস্বতীর পূজাঅর্চনার মধ্যদিয়ে এর আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। এরপর ভক্তরা পুষ্পাঞ্জলি দিয়ে প্রণাম জানায় বিদ্যার দেবী সরস্বতীকে। পরে দেবীর সামনে ‘হাতে খড়ি’ দিয়ে ছোট শিশুদের বিদ্যাচর্চার সূচনা হয়। এ ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকেয়া হল, বেগম শামসুন্নাহার হল, কুয়েত মৈত্রী হল ও বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল এবং ইডেন কলেজে পৃথক পূজামন্ডপ তৈরি করা হয়। এদিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে সরস্বতী পূজা উদযাপিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় সরস্বতী পূজার আয়োজন করা হয়। এ ছাড়া রামকৃষ্ণ মিশন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে, ঢাকা মেডিকেল কলেজ, প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, শাঁখারী বাজার, তাঁতীবাজার, খিলগাঁও তিলপাপাড়া দেবমন্দিরে কৃপাসংঘসহ বিভিন্ন স্থানে বিপুল উদ্দীপনায় পূজার আয়োজন করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ