ঢাকা, বুধবার 24 January 2018, ১১ মাঘ ১৪২৪, ৬ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মণিরামপুরে নববধূর রহস্যজনক মৃত্যু

নিছার উদ্দীন খান আযম, মণিরামপুর (যশোর): যশোরের মণিরামপুরে ঝরনা খাতুন (১৯) নামের এক নববধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। রবিবার সকালে স্বজনরা তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেন। এই ঘটনায় সকাল থেকে স্থানীয়রা ঝরনার স্বামী রাজু মোল্যাসহ তার দুই নন্দ খাদিজা ও চম্পাকে ধরে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার কাশিমনগর গ্রামে।
গত ১৫ জানুয়ারী নড়াইলের ভদ্রবিলা গ্রামের শহীদ মোল্যার ছেলে রাজু মোল্যার সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় ঝরনা খাতুনের। গত শুক্রবার দুপুরে স্বামী ও দুই নন্দকে সাথে নিয়ে পিতার বাড়িতে বেড়াতে আসে সে।
নিহত ঝরনার মা ফাতেমা বেগম জানান, রাতে খাবার খাওয়ার পর মেয়ে ও জামাই একই ঘরে ঘুুমাতে যায়। সকাল সাড়ে সাতটার দিকে জামাই রাজুর চিৎকার শুনতে পেয়ে ঘরে গিয়ে ঘরের আড়ার সাথে মেয়েকে ওড়না জড়িয়ে ঝুলে থাকতে দেখি। ঝরনার স্বামী রাজু মোল্যা বলেন, গত শনিবার ঝরনার সাথে সামান্য বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। সকালে ঘুম থেকে জেগে দেখি ঝরনা ঘরের আড়ার সাথে ঝুলছে। ঝরনার ভগ্নিপতি আল-আমিন বলেন, ঝরনাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। স্বামী পাশে থাকতে স্ত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে মারা যাবে এটা হাস্যকর।
স্থানীয় কাশিমনগর ইউপি চেয়ারম্যান জিএম আহাদ আলী বলেন, বিষয়টি আমি শুনেছি। মণিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোকাররম হোসেন জানান, এই ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ