ঢাকা, শুক্রবার 26 January 2018, ১৩ মাঘ ১৪২৪, ৮ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপিকে  অন্তর্ভুক্তির সুযোগ নেই  ----------- ওবায়দুল কাদের 

 

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্প্রতিক ঘটনা সম্পর্কে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘ছাত্রলীগ ভিসির আমন্ত্রণে এসেছে। ভিসি আক্রান্ত, তাঁকে মেরে ফেলার একটি অ্যাটেম্পট লক্ষ করে ভিসিকে উদ্ধার করার চেষ্টা করেছে তারা। তারপরও ছাত্রলীগ কোনো অন্যায় করে থাকলে তার বিচার হবে। ছাত্রলীগের সংশ্লিষ্টতা থাকলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।’

কুড়িগ্রাম শহরের ত্রিমোহনীতে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে কুড়িগ্রাম-রাজারহাট-তিস্তা জেলা মহাসড়ক উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধনের সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তদন্ত চলছে। তদন্তে ছাত্রলীগের কেউ দোষী প্রমাণিত হলে প্রশাসনিক ও সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে প্রথম কারা ইউনিভার্সিটিতে ঢুকে ভিসি অফিসের দরজা ভাঙল, তালা ভাঙল তা দেখতে হবে। আর ছাত্রলীগ বলেছে, ‘প্রথমে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র, তারপর ছাত্রলীগ।’ আগামী মার্চে সম্মেলনের পর ছাত্রলীগকে নতুন মডেলে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

১৯ কিলোমিটার দীর্ঘ কুড়িগ্রাম-রাজারহাট-তিস্তা জেলা মহাসড়ক উন্নয়ন প্রকল্পে সড়কটি ৩ দশমিক ৭০ মিটার থেকে ৫ দশমিক ৫০ মিটার প্রশস্থ সড়কে উন্নীত করা হবে। এ ছাড়া দুটি সেতু ও তিনটি কালভার্ট পুনর্র্নিমাণ করা হবে। প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৯ কোটি ৮৭ লাখ টাকা।

নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপিকে অন্তর্ভুক্ত করার সুযোগ নেই মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিগত নির্বাচনের সময় তাদের এ সরকারে যোগদানের আমন্ত্রণ, এমনকি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। তারা তা প্রত্যাখ্যান করে। এখন তো তারা পার্লামেন্টে নেই। আমরা কীভাবে তাদের আমন্ত্রণ জানাব।’

দলীয় নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনি ভালো আর আপনার আশপাশের লোক খারাপ। তাহলে তো হলো না। আগে নিজে ঠিক হোন।’ এরপর শীতার্ত মানুষের মধ্যে এক হাজার কম্বল বিতরণ করেন তিনি।

ওই প্রতিনিধি সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম, দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী প্রমুখ।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, দল ক্ষমতায় থাকলে সুবিধাবাদী ও সুযোগসন্ধানী মৌসুমি পাখিরা দলে ভিড়তে চাইবে। মনে রাখতে হবে, আবার কখনো দুঃসময় এলে তাদের কাউকে বাতি জ্বালিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না। দল ভারী করতে খারাপ লোকদের দলে নেওয়া যাবে না।

জনগণকে খুশি করে নেতা হতে হবে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, সবার কাজের ভালো-মন্দের এসিআর প্রধানমন্ত্রীর কাছে আছে। নির্বাচনে মনোনয়ন দেওয়া হবে জনপ্রিয়তা ও গ্রহণযোগ্যতা দেখে। বিলবোর্ডে নায়ক মার্কা চেহারা দেখে কাউকে মনোনয়ন দেওয়া হবে না। সেতুমন্ত্রী আরও জানান, ভবিষ্যতে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে লালমনিরহাটে বিমানবন্দর চালুর জন্য সব পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ