ঢাকা, বুধবার 31 January 2018, ১৮ মাঘ ১৪২৪, ১৩ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চট্টগ্রামে প্রতিবেশী নারীকে গুলী করে হত্যার মামলায় এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড

চট্টগ্রাম অফিস : চট্টগ্রামে বিরোধের জের ধরে প্রতিবেশী নারীকে গুলী করে হত্যার ঘটনায় আবদুর সবুর নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। গতকাল  মঙ্গলবার চট্টগ্রামের চতুর্থ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ বেগম তানিয়া কামাল এ রায় দেন।
আদালত সূত্র জানায়, আসামী সবুর জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর থেকে পলাতক আছে। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ৯ আসামীকে মামলার অভিযোগ থেকে খালাস দেন আদালত। এছাড়া খলিলুর রহমান নামে আরেক আসামী মামলা চলাকালে মারা যাওয়ায় তার নামও বাদ দেওয়া হয়েছে।
মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০০৩ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার দক্ষিণ কাথারিয়া মাঝির পাড়া এলাকার আবদুর সবুর পারিবারিক বিরোধের জের ধরে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে প্রতিবেশী মোজাহের আহমেদের বাড়িতে হামলা চালান। এ সময় সবুর মোজাহেরকে লক্ষ্য করে গুলী ছোড়েন। কিন্তু সেটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে মোজাহেরের স্ত্রী দিলোয়ারার গায়ে লাগলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।এ ঘটনায় বাঁশখালী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন মোজাহের। এরপর ২০০৬ সালের ১০ অক্টোবর ১১ আসামীকে অভিযুক্ত করে মামলার বিচার শুরু করেন আদালত। এক যুগ ধরে চলা এ বিচার প্রক্রিয়ায় নয় সাক্ষীর বক্তব্য শুনে বিচারক মঙ্গলবার এ রায় ঘোষণা করেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন আইনজীবী একেএম নুরুল আহসান।
পরিবেশ দূষণের দায়ে জরিমানা
চট্টগ্রামে কারখানা থেকে কালো ধোঁয়া বের করার দায়ে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে রড় প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান বেঞ্জ ইন্ড্রাস্ট্রিজ লিমিটেডকে। গতকাল মঙ্গলবার পরিবেশ অধিদফতরে শুনানি শেষে ওই প্রতিষ্ঠানকে এ জরিমানা করা হয়।
জানা গেছে,গত ২৩ জানুয়ারি চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়েজিদ বোস্তামী রোড়ের নাসিরাবাদ শিল্প এলাকার বেঞ্জ ইন্ড্রাস্ট্রিতে অভিযান চালিয়ে কালো ধোঁয়া নির্গত হওয়ার প্রমাণ পাওয়া যায়।
পরিবেশ অধিদফতরের মহানগরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মো. আলতাফ হোসেন চৌধুরী জানান, অভিযানের সময় ওই কারখানা থেকে কালো ধোঁয়া নির্গত হওয়ার প্রমাণ পাওয়া যায়। কারখানা র্র্কতৃপক্ষকে ৩০ জানুয়ারি শুনানিতে উপস্থিত থাকার জন্য বলা হয়েছিল।শুনানি শেষে প্রতিষ্ঠানটিকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া দ্রুত বায়ু পরিশোধন প্ল্যান্ট যথাযথভাবে পরিচালনার নির্দেশ দেয়া হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ