ঢাকা, সোমবার 5 February 2018, ২৩ মাঘ ১৪২৪, ১৮ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ভারতীয় নাগরিকের দায়েরকৃত যৌন হয়রানির মামলায় হাজতী আসামীর জামিন নামঞ্জুর

চট্টগ্রাম অফিস : সাবেক জাতীয় অধ্যাপক ডাঃ নুরুল ইসলাম প্রতিষ্ঠিত ইউএসটিসি (ইউনিভার্সিটি অফ সাইন্স এন্ড টেকনোলজি, চিটাগাং) এ অধ্যায়নরত জনৈকা বিদেশী নারী ইন্টার্ন ডাক্তার কর্তৃক দায়েরকৃত মামলায় একই হাসপাতালের অভিযুক্ত ওয়ার্ড মাস্টার আব্দুর রহিমের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ শাহে নূর এর আদালত।
আইনজীবীদের সূত্রে জানা গেছে, ইউএসটিসি’তে অধ্যয়নরত জনৈকা ভারতীয় নাগরিক ইন্টার্ন ডাক্তার (শেখ মাহশীদ নূর) খুলশী থানায় আসামী আব্দুর রহিম, পিতা- মৃত আব্দুর মোনাফ, সাং- উত্তর মোহরা, থানা- চন্দনাইশ, চট্টগ্রাম- এর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১০ ধারায় (খুলশি থানার মামলা নং ২১(১২)১৭) স্বহস্তে লিখিত এজাহার দায়ের করেন। একজন বিদেশিনী ইন্টার্ন ডাক্তারকে যৌন হয়রানি করার অভিযোগটির বিষয়ে ভিকটিমের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিভাগীয় তদন্তের ঘটনায় সত্যতা পাওয়া যাওয়ায় গত ১১ জানুয়ারি বিএমএইচ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ উক্ত কর্মচারীকে (আসামী) চাকরি হতে বরখাস্ত করে। উক্ত আসামী গত ২৮ ডিসেম্বর সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে আত্মসমর্পণ করলে উচ্চ আদালত তাকে জামিন না দিয়ে ৩ সপ্তাহের মধ্যে বিজ্ঞ সি এম এম আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন। গত ১৬ জানুয়ারি নিম্ন আদালতে (সিএমএম কোর্টে) আত্মসমর্পণ করলে আদালত তাঁর জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।
 উক্ত আদেশের বিপরীতে হাজতী আসামী পক্ষে অদ্য মহানগর দায়রা জজ আদালতে জামিন শুনানিকালে রাষ্ট্রপক্ষে মহানগর পি পি এডভোকেট মোঃ ফখরুদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘এটি একটি চাঞ্চল্যকর যৌন হয়রানির মামলা ।’ আসামী মামলার সোল একিউজড, অভিযোগ সুনিন্দিষ্ট । এই ধরনের ঘটনায় ভিকটিম সহ বিদেশী শিক্ষার্থীরা আতঙ্কিত, তাঁদের নিরাপত্তার স্বার্থে আসামীর জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করা প্রয়োজন ।
 ভিকটিম পক্ষে মানবাধিকার আইনজীবী জিয়া হাবীব আহ্সান বলেন, ‘আসামী একজন অত্যন্ত বেপরোয়া স্বভাবের অপরাধী। তিনি ২৭ নবেম্বর ২০১৭ ইং সন্ধ্যা ৭৩০টায় এবং ১৯ ডিসেম্বর বেলা ১টায় এই ঘটনার বার বার পুনরাবৃত্তি ঘটান। ভারতীয় হাইকমিশন ভারতীয় নাগরিকের সম্মান ও নিরাপত্তার ব্যাপারে গভীর উদ্বেগ ও অসন্তোষ প্রকাশ করেন এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে এই দুর্বৃত্তদের হুমকী থেকে তাদের নাগরিককে রক্ষার জন্য বিশেষ অনুরোধ জানান। তাছাড়া এই আসামী ভিকটিমকে যৌন হয়রানির চেষ্টা চালায় ও এসিড নিক্ষেপের হুমকি দেয় । যা ভিকটিম নিজ হাতে লিখিত এজাহারে উল্লেখ করে।
আদালত শুনানি শেষে আসামীর জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেন । বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন মানবাধিকার আইনজীবীবৃন্দ যথাক্রমে - এডভোকেট জিয়া হাবীব আহ্সান, এডভোকেট সুনীল সরকার, এডভোকেট এএইচএম জসীম উদ্দিন, এডভোকেট জান্নতুল নাঈম রুমানা, এডভোকেট দেওয়ান ফিরোজ আহমদ, এডভোকেট সৈয়দ মোহাম্মদ হারুন, এডভোকেট প্রদীপ আইচ দীপু, এডভোকেট সাইফুদ্দিন খালেদ প্রমুখ এবং আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল, এডভোকেট এমদাদ হোসেন প্রমুখ আইনজীবীগণ ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ