ঢাকা, সোমবার 5 February 2018, ২৩ মাঘ ১৪২৪, ১৮ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পুলিশ ও সেনাবাহিনী খালেদা জিয়ার অধীনে হলে দেশ কীভাবে চলছে ?--স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

 

সংসদ রিপোর্টার : পুলিশ ও সেনাবাহিনী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অধীনে হলে দেশ কীভাবে চলছে ? এমন প্রশ্ন তুলেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। গতকাল রোববার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সরকারি দলের এমপি আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইনের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পাল্টা এই প্রশ্ন ছুড়ে দেন। অপর এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, শফী হুজুর কওমি মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারপার্সন। আমরা শফি হুজুরকে অফিসিয়ালি স্বীকৃতি দিয়েছি 

গতকাল রোববার বিকেলে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে এসময় জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজরে রাব্বী মিয়া সভাপতিত্ব করছিলেন।

গত শনিবার দলের নির্বাহী কমিটির সভায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছিলেন, বিএনপির কোনও ভয় নেই। বিএনপির সঙ্গে প্রশাসন আছে, পুলিশ আছে, সশস্ত্র বাহিনী আছে। এ দেশের জনগণ আছে। দেশের বাইরে যারা আছেন, তারাও বিএনপির সঙ্গে আছেন।

গতকাল রোববার সংসদে সম্পূরক প্রশ্নে সরকারি দলের এমপি আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন এ বিষয়ে এবং খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে সম্ভাব্য আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে জানতে চান।

জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়ার মামলাটি এখনও বিচারাধীন। বিচারক জানেন কী রায় দেবেন। কিন্তু কেউ আইন নিজের হাতে তুলে নিলে, অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করলে বা ভাঙচুর করলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। যারা পুলিশের ভ্যান ভাঙচুর করেছিল, ভিডিও দেখে তাদের শনাক্ত করা হচ্ছে, গ্রেফতার করা হচ্ছে। তিনি বলেন, রায়ের পরে যদি কেউ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করে তবে আমরা কঠোরভাবে তার মুকাবিলা করবো।

আওয়ামী লীগের সংরক্ষিত সংসদ সদস্য ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরার এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, গত ৩০ জানুয়ারি খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরের সামনে থেকেই পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা করা হয়েছে। 

তিনি বলেন, সেদিন তারা অতর্কিত হামলা করে পুলিশের প্রিজন ভ্যান ভাঙচুর করে। সেদিনের ভিডিও ফুটেজ দেখে হামলাকারীদের শনাক্ত করা হচ্ছে। সেদিন তারা পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে পুলিশের দুটি রাইফেল ভেঙেছে, পুলিশের প্রিজন ভ্যান ভাঙচুর করেছে।

আসাদুজ্জামন খাঁন কামাল আরও বলেন, যখন ঘটনাটি ঘটে ঠিক তখনই বিএনপি চেয়ারপারসন সেই রাস্তায় দিয়ে যাচ্ছিলেন। তার সামনের বহর থেকেই ঘটনাটি ঘটে। আমাদের পুলিশ অত্যন্ত ধৈর্যের সঙ্গে পরিস্থিতি  মোকাবেলা করেছে। ভিডিও দেখে জড়িতদের শনাক্ত করা হচ্ছে। শনাক্ত করে তাদের সবাইকে আইনের মুখোমুখি করা হবে।

কওমী মাদরাসার  চেয়ারপার্সন হিসেবে

‘শফী হুজুরকে অফিসিয়ালি স্বীকৃতি দিয়েছি’- কামাল

শাহ আহমদ শফী আলেম সমাজের কাছে অত্যন্ত জনপ্রিয়। প্রধানমন্ত্রী কওমি মাদরাসার সনদের স্বীকৃতি দিয়েছেন, শফী হুজুর কওমি মাদরাসার চেয়ারপার্সেন। কওমি মাদরাসার স্বীকৃতির দিন তিনি গণভবনে ছিলেন। আমরা তাকে গণভবনে ডেকে অফিসিয়ালি স্বীকৃতি দিয়েছি বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল । 

হেফাজতে ইসলামের আমীর শাহ আহমদ শফীর সঙ্গে চট্টগ্রামে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের সাক্ষাৎ নিয়ে গতকাল সংসদে জাসদের সংসদ সদস্য নাজমুল হক প্রধানের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তরকালে সম্পূরক প্রশ্নে সেদিনের ঘটনাটি তুলে ধরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ব্যাখ্যা দাবি করেন জাসদ দলীয় ওই সংসদ সদস্য।

জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, শাহ আহমদ শফী সাহেবকে সারাদেশের আলেম সমাজ অত্যন্ত সম্মান করে। আলেম সমাজ না শুধু, যারা মসজিদ, মাদরাসায় শিক্ষকতা করেন কিংবা মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিন তাদের কাছেও অত্যন্ত সম্মানীত ব্যক্তি তিনি। সেদিন আমি পাশেই এক জায়গায় গিয়েছিলাম, তার অসুস্থতার সংবাদ শুনে ওই জায়গায় গিয়েছি। 

মিয়ানমার সীমান্তে ২৭১ কিলোমিটার কাঁটাতারের বেড়া

বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশ রোধ, মাদকদ্রব্যসহ অন্যান্য চোরাচালান রোধ, বিভিন্ন প্রকার সীমান্ত অপরাধ দমন এবং দেশের অভ্যান্তরীণ আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় প্রাথমিক পর্যায়ে মিয়ানমার সীমান্ত এলাকায় শাহপরীর দ্বীপ হতে ২৭১ কিলোমিটার রিং রোডসহ কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। গতকাল রোববার এমপি মামুনুর রশীদ কিরনের (নোয়াখালী-৩) এক প্রশ্নের জবাবে  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা জানান। 

আওয়ামী লীগের আরেক সংসদ সদস্য কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগমের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, মিয়ানমার থেকে যেসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছেন তারা যাতে টেকনাফের শরণার্থী ক্যাম্প থেকে পালিয়ে যেতে না পারেন সেজন্য একটা নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে রাখা হয়েছে। চট্টগ্রাম শহরসহ দেশের অন্য কোনো শহরে প্রবেশে রোধে সংশ্লিষ্ট এলাকার বাস/নৌরুটের মালিকদের এনআইডি কার্ড ছাড়া কাউকে টিকিট না দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গারা যাতে অন্য এলাকায় ছড়িয়ে যেতে না পারে সেজন্য ১১টি চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন জেলায় আটক রোহিঙ্গাদেরও ক্যাম্পে ফেরত পাঠানো হয়েছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী রোহিঙ্গাদের  দৈনন্দিন চলাচল মনিটরিং করছে। এছাড়াও রোহিঙ্গারা যাতে জেলেদের সঙ্গে মিশে মাছ ধরতে না পারেন সেজন্যও নজর রাখা হচ্ছে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বঙ্গবন্ধুর খুনীদের দেশে ফেরানোর সর্বাত্বক চেষ্টা অব্যাহত

 খুনীদের জমি বাজেয়াপ্ত

জাতীর পিতার খুনীদের দেশে ফিরিয়ে এনে দ- কার্যকর করার জন্য সর্বাত্বক চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। এ লক্ষ্যে ২০১০ সালের ২৮ মার্চ একটি টাক্সফোর্স গঠন করা হয়। ২০১৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত টাক্সফোর্স দ-প্রাপ্ত খুনীদের অবস্থান চিহ্নিত করা এবং দেশে ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে সর্বাত্বক কার্যক্রম গ্রহণ করে।

তিনি বলেন, জাতির পিতার খুনীদের ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে এসব খুনীদের ছবি সংবলিত তথ্য প্রেরণ করা হয়েছে। পলাতক আসামীদের মধ্যে লে. কর্নেল (অব.) খন্দকার আবদুর রশিদের মালিকানাধীন ১৬ দশমিক ৯৪ একর, রাশেদ চৌধুরীর ১ দশমিক ১৫ একর জমি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। এছাড়া কানাডায়  অবস্থানরত নূর চৌধুরী এবং যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত মেজর (অব.) আবু মোহম্মদ রাশেদ চৌধুরীকে ফেরৎ আনতে ‘ল’ ফার্মের কায়ক্রম অব্যাহত রয়েছে। অন্য পলাতক খুনীদের অবস্থান চিহ্নিত করতে ইনটারপোলের মাধ্যমে রেড এলার্ট জারি করা হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

১ বছরে ১২শ’ কোটির চোরাই মাল আটক

গত বছরের (২০১৭ ) জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত বিজিবি কতৃক ১ হাজার ২১৭ কোটি ৫৫ লাখ ৭৪ হাজার ৪৮৭ টাকা মূল্যের ফরমালিনসহ বিভিন্ন চোরাচালানী পণ্য আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। গতকাল জাতীয় সংসদে বজলুল হক হারুন ( ঝালকাঠি-১) এর এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ তথ্য জানান। মন্ত্রী জানান, উক্ত মালামাল আটককালে ২ হাজার ৫০৬ জন চোরাকারবারী আটক করে তাদের বিরুদ্ধে ২৫ হাজার ১৫২টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

৪১৩০ কেজি সোনা জব্দ

সংসদ সদস্য এম এ আউয়ালের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামাল জানান, ২০০৯ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন দফতর অবৈধভাবে আনীত মোট ৪ হাজার ১৩০ দশমিক ৪২৫ কেজি স্বর্ণ আটক করা হয়েছে।

বাংলাদেশে ৮৫ হাজার ৪৮৬ জন বিদেশী নাগরিক কর্মরত

বিভিন্ন পেশায় ৮৫ হাজার ৪৮৬ জন বিদেশী নাগরিক বাংলাদেশে কর্মরত রয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের তথ্য অনুযায়ী তালিকায় সবচেয়ে বেশি রয়েছেন ভারতীয় নাগরিক। গতকাল বিকেলে সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তরকালে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য এ কে এম মাঈদুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। 

কাজের ধরন অনুযায়ী পরিসংখ্যানে দেখা যায় ব্যবসায় মালিক রয়েছেন ৬৭ হাজার ৮৫৩ জন, এক্সপোর্টার ৮ হাজার ৩০০ জন, অফিসার ৩ হাজার ৬৮২ জন,  খেলোয়াড়/স্পোর্টস সংগঠক ২ হাজার ১০৫ জন, ক্যাপিটাল বিনিয়োগকারী ৯২২ জন, পার্সোনাল স্টাফ ৮০৪ জন, ইকুপমেন্ট টেকনিক্যাল পার্সোনাল ৭২৭ জন, এনজিও কর্মী ৫৬১ জন, রিসার্স/ট্রেনিং ৪০০ জন এবং গৃহকর্মী ১৩২ জন।

এসব বিদেশীদের মধ্যে সর্বাগ্রে ভারতের ৩৫ হাজার ৩৮৬ জন, দ্বিতীয়স্থানে চীনের ১৩ হাজার ২৬৮ জন, তৃতীয় জাপানের ৪ হাজার ৯৩ জন, ৪র্থ সাউথ কোরিয়র ৩ হাজার ৩৯৫ জন, মালয়েশিয়ার ৩ হাজার ৮০ জন, শ্রীলঙ্কার ৩ হাজার ৭৭ জনসহ বহু দেশের নাগরিক কর্মকত আছেন।

 ২০১৩-২০১৭-এ এপ্রিল পর্যন্ত ১০ হাজার সড়ক দুর্ঘটনা

২০১৩ সাল থেকে ২০১৭ সালের এপ্রিল পর্যন্ত সারা দেশে মোট ৯ হাজার ৯৪৫টি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। গতকাল চট্টগ্রাম-৪ আসনের এমপি দিদারুল আলমের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ পরিসংখ্যান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ