ঢাকা, বৃহস্পতিবার 8 February 2018, ২৬ মাঘ ১৪২৪, ২১ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বগুড়ায় বিএনপি নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি তল্লাশি ।। আতংকে হাজার হাজার নেতাকর্মী ঘরছাড়া

বগুড়া অফিস : বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে সারাদেশের মতো বগুড়াতেও ব্যাপক ধরপাকড় চলছে। এক সপ্তাহ আগে থেকে জেলার বিভিন্ন থানায় বিরামহীন অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। ইতোমধ্যেই দুই শতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে দলীয় সূত্রে দাবি করা হয়েছে। এদের বেশিরভাগই বিএনপি ও অঙ্গদলের নেতাকর্মী। রায়কে কেন্দ্র করে যেকোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বগুড়া জেলা ম্যাজিষ্ট্রেটের আবেদনের প্রেক্ষিতে ৩ প্লাটুন বিজিবি সদস্য বগুড়ায় অবস্থান করছেন। বুধবার সন্ধা ৬টায় রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জেলার কোথাও বিজিবি সদস্য টহল শুরু করেনি।
গোয়েন্দা পুলিশের তথ্যমতে, বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে সারাদেশের মতো বগুড়ায় কঠোর নিরাপত্তা বলয় তৈরী করা হয়েছে। যে কোন  পরিস্থিতি মোকাবেলায় গোয়েন্দা নজরদারী বাড়ানো হয়েছে। একই সাথে প্রাথমিক অবস্থায় ২ স্তরে এবং প্রয়োজেন ৩ স্তরে নিরাপত্তা ব্যবস্থায় শহর ও এর আশপাশের এলাকায় রাস্তার মোড়ে মোড়ে চেক পোস্ট ও নিরাপত্তা চৌকি স্থাপন করা হয়েছে। শহরে পুলিশের একাধিক টিম তাদের অবস্থানের পাশাপাশি টহল জোরদার করেছে।
বগুড়ার এনডিসি জাকির হোসেন জানান, মেজর মাহবুব হোসেনের নেতৃত্বে ৩ প্লাটুন বিজিবি সদস্য বুধবার দুপুর থেকে শহরতলীর তিনমাথা যুব উন্নয়ন কেন্দ্রে অবস্থান করছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিজিবি সদস্যরা শহরে টহল দিবে। একই সাথে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যপাটালিয়ন (র‌্যাব) ও আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) বুধবার বিকেল থেকেই শহরে টহল শুরু করেছে।
এদিকে, মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার বিকেল পর্যন্ত বগুড়া জেলার বিভিন্ন স্থানে ৪৯ বিএনপি নেতাকর্মীকে গ্রেফতারের খবর পাওয়া গেছে। বুধবার সকাল থেকে পুলিশের বিশেষ টিম জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান শুরু করেছে। তারা প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে বিএনপি নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তল্লাশি করছে বলে জানাগেছে। একাধিক বিএনপি কর্মীর স্বজনরা জানিয়েছেন, পুলিশ সদস্যরা বিশাল গাড়ীর বহর নিয়ে গ্রামের ভেতরে ঢুকে বিএনপি নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নেতাকর্মীদের খোঁজ নিয়েছে। পুলিশের তল্লাশিকে কেন্দ্র করে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলেও মানুষের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। গ্রেফতার এড়াতে ঘর ছেড়েছেন হাজার নেতাকর্মী। রায়কে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষ হয়রানির শিকার হতে পারে এমন আশংকাও করছেন অনেকে। তবে, পুলিশের পক্ষ থেকে কোন নিরপরাধ ব্যক্তিকে হয়রানি না করার কথা বলা হয়েছে। অপরদিকে, বিএনপি ও অঙ্গদলের নেতাকর্মীর পাশাপাশি জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীদের মাঝেও আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।  নেতা কর্মীদের পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার অভিযান শুরু হতে পারে এমন আশংকায় হাজার হাজার নেতাকর্মী বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ স্থানে আত্মগোপন করেছেন বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।
বগুড়া জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল জলিল জানান, রায়কে কেন্দ্র করে জেলা পুলিশের পক্ষে যে কোন পরিস্থিতি কঠোর হাতে মোকাবেলায় প্রশাসনের ব্যাপক প্রস্তুতি রয়েছে। এ উপলক্ষে সার্বক্ষণিক নজরদারীর পাশাপাশি শুধুমাত্র বগুড়া শহর ও আশপাশের এলাকাসহ গোটা পৌর এলাকায় কমপক্ষে ১২’শ পুলিশ সদস্য মোতায়েন থাকবে। বিশেষ নিরাপত্তায় পুলিশের রায়েট ট্রাক(এপিসি), জলকামানসহ সব ধরনের প্রস্তুুতিও থাকছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ