ঢাকা, বৃহস্পতিবার 8 February 2018, ২৬ মাঘ ১৪২৪, ২১ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

৫ জানুয়ারির মতো যেনতেন নির্বাচন দিলে দেশবাসী রুখে দাঁড়াবে

সিলেট ব্যুরো : ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, নতুন ইসিকে গ্রহণযোগ্য ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থে সকল দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত এবং রাজনৈতিক দলকে সমান সুযোগ করে দিতে হবে এবং অবিলম্বে সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে নির্বাচন দেয়ার দাবি জানিয়ে বলেন, ৫ জানুয়ারির মত যেনতেন নির্বাচন দিতে চাইলে দেশবাসী রুখে দাঁড়াবে। মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ বাংলাদেশে ইসলামিক শাসন ব্যবস্থা না থাকায় সমাজে অশান্তি বিরাজ করছে। তাই মানবতার মুক্তির লক্ষ্যে রাসূল (সা.) এর আদর্শ সমাজে প্রতিষ্ঠিত করাতে হবে। তবেই শান্তি-শৃঙ্খলা ফিরে আসবে।  রাসূল (সা.) এর আদর্শ সমাজে প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য সকলকে আন্তরিকতার সাথে কাজ করার পাশাপাশি ইসলামী আন্দোলনের পতাকা তলে ঐকবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
 তিনি আরও বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ খসড়া সাংবাদিকদের গতিবিধির উপর এ আইন প্রচ্ছন্ন নিয়ন্ত্রণ। যা স্বাধীন মত প্রকাশের অন্তরায়, বাক স্বাধীনতার এ কালো আইন অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে। পীর সাহেব চরমোনাই আরো বলেন সরকার জনগণের দুঃখ-দুর্দশার কথা বেমালুম ভুলে গেছেন বলেই বার বার বলা সত্ত্বেও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যের লাগাম টেনে ধরতে পারছেন না। এ ভাবে ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না। জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বলে সরকার জনগণের প্রতি কোন দায়বদ্ধতা নেই। তিনি সাধারণ জনগণের কথা বিবেচনায় এনে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম নাগালের মধ্যে রাখার দাবি জানান। বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বৃদ্ধি প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, নতুন করে গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নজিরবীহিন ও গণবিরোধী। তাই গ্যাস ও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি প্রত্যাহারের দাবি জানান।
রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, রোহিঙ্গা মুসলমানদের নাগরিকত্ব ও নিরাপত্তা নিশ্চিত না করে মিয়ানমারের সামরিক জান্তার হাতে ছেড়ে দেয়া উচিত হবে না। আরাকানের মুসলমানদের নাগরিকত্বসহ সকল অধিকার নিশ্চিত কারার লক্ষ্যে বাংলাদেশের সেনাবাহিনীসহ জাতিসংঘের শান্তি বাহিনীর তত্ত্বাবধানে তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করতে হবে। এ জন্য বাংলাদেশ সরকারকে আরো কুটনৈতিক তৎপরতা অব্যাহত রাখতে হবে।
সমাবেশে তিনি আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদপ্রার্থী হিসেবে প্রফেসর ড. মোয়াজ্জেম হোসেন খানকে জনসম্মুখে পরিচয় করিয়ে দেন। এছাড়াও তিনি আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত সিলেট বিভাগের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন। তারা হচ্ছেন- সিলেট-১ ও ২ আসনে প্রফেসর ড. মোয়াজ্জেম হোসেন খান, সিলেট-৩ আসনে এম.এ মতিন বাদশা, সিলেট-৪ আসনে হানিফ খন্দকার, সিলেট-৫ আসনে নজির আহমদ, সিলেট-৬ আসনে আজমল হোসেন, সুনামগঞ্জ-১ আসনে মুফতি মোঃ ফখর উদ্দিন, সুনামগঞ্জ-২ আসনে মাওলানা আব্দুল হাই, সুনামগঞ্জ-৩ আসনে কারী মুহিব্বুল হক আজাদ, সুনামগঞ্জ-৪ আসনে আব্দুল গফুর, সুনামগঞ্জ-৫ আসনে মাওলানা হুসাইন আল হারুন, মৌলভীবাজার-১ আসনে মোঃ গিয়াস উদ্দিন, মৌলভীবাজার-২ আসনে হাফিজ মশিউর রহমান, মৌলভীবাজার-৪ আসনে মাওলানা আব্দুল মতিন, হবিগঞ্জ-১ আসনে মোঃ আব্দুল হান্নান, হবিগঞ্জ-২ আসনে মাওলানা আবুল জামাল মশহুদ হাসান, হবিগঞ্জ-৩ আসনে মহিব উদ্দিন আহমদ সোহেল, হবিগঞ্জ-৪ আসনে মোঃ কামাল উদ্দিন।
গতকাল বুধবার বিকেলে ৩টায় সিলেট নগরীর কোর্ট পয়েন্টে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সিলেট জেলা ও মহানগর আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।
ইসলামী আন্দোলন সিলেট মহানগর সভাপতি মুফতি মোঃ ফখর উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও মহানগর সেক্রেটারি ডাঃ রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফিজ মাওলানা ইউনুস আহমদ, কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট বিভাগীয় সমন্বয়কারী প্রফেসর ডা. মোয়াজ্জেম হোসেন খান, ইশা ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শেখ ফজলুল করিম মারুফ, কেন্দ্রীয় কওমী মাদরাসা বিষয়ক সম্পাদক মু. মাহমুদুল হাসান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন সিলেট জেলা সভাপতি নজির আহমদ, হবিগঞ্জ জেলা সভাপতি মুহিব উদ্দিন আহমদ সোহেল, সুনামগঞ্জ জেলা সভাপতি কারী মুহিব্বুল হক আজাদ, ইসলামী যুব আন্দোলন সিলেট জেলা সভাপতি নজির আহমদ, হবিগঞ্জ জেলা সভাপতি আসাদুজ্জামান লিটন, সুনামগঞ্জ জেলা সভাপতি তানভির আহমদ তাসলিম, জাতীয় শিক্ষক ফোরাম সিলেট জেলা সভাপতি মাওলানা আব্বাস উদ্দিন, ইশা ছাত্র আন্দোলন সিলেট জেলা সভাপতি মু. সুহেল আহমদ, মহানগর সভাপতি শিহাব উদ্দিন ইসলামিক শ্রমিক আন্দোলন সিলেট জেলা সভাপতি আলহাজ্ব ফজলুল হক প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ