ঢাকা, বৃহস্পতিবার 8 February 2018, ২৬ মাঘ ১৪২৪, ২১ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ফেনীতে জানাযায় মানুষের ঢল

ফেনীতে ফালাহিয়া মাদরাসা মাঠে মাওলানা আবদুল ওহাব ভূঞার (ইনসেটে) নামাযে জানাযায় উপস্থিত বিভিন্ন শ্রেণির মানুষের একাংশ

চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) সংবাদদাতা : ফেনী আল-জামেয়াতুল ফালাহিয়া কামিল মাদরাসার আরবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাওলানা আবদুল ওহাব ভূঞাকে গতকাল বুধবার দুপুরে নামাযে জানাযা শেষে বাবার কবরের পাশে দাফন করা হয়। এরআগে তিনি মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তিকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহে রাজিউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫২ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও তিন মেয়ে রেখে গেছেন। তিনি জামায়াতে ইসলামী ফেনী শহর শাখার নায়েবে আমীর ছিলেন। এর আগে ফেনী সদর উপজেলা আমীর, জেলা মজলিশে শূরা সদস্যসহ বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেন। ছাত্রজীবনে তিনি ছাত্রশিবিরের কুমিল্লা জেলা উত্তর শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।  গতকাল বুধবার সকালে তাঁর কর্মস্থল ফেনী ফালাহিয়া মাদরাসা মাঠে প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মাদরাসার শিক্ষক-ছাত্র ছাড়াও রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ বিপুল সংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। দুপুর দুইটায় চৌদ্দগ্রামের কালিকাপুর ইউনিয়নের আবাসপুর মাদরাসা মাঠে নামাযে জানাযা শেষে তাকে জন্মস্থান সমেশপুর গ্রামে বাবা মরহুম আজিম উদ্দিনের কবরের পাশে দাফন করা হয়।  এদিকে মাওলানা আবদুল ওহাব ভূঞার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন চৌদ্দগ্রামের সাবেক এমপি ও জামায়াতের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ডাঃ সৈয়দ আবদুল্লাহ মোঃ তাহের। এক শোক বার্তায় ডাঃ তাহের বলেন, মাওলানা আবদুল ওহাব ছিলেন লাখো মানুষের প্রিয়মুখ। তিনি ছিলেন ইসলামী আন্দোলনের জন্য নিবেদিত প্রাণ। তার মৃত্যুতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। আল্লাহ তার পরিবারকে ধৈর্য্য ধারণ করার তৌফিক দান করুক, আমিন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ