ঢাকা, শুক্রবার 9 February 2018, ২৭ মাঘ ১৪২৪, ২২ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সৌদি বাদশাহর সঙ্গে সুষমা স্বরাজের বৈঠক

সুষমা স্বরাজের সঙ্গে বৈঠক করছেন সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ

৮ ফেব্রুয়ারি, আল-আরাবিয়া/আল ওয়াতান : তিন দিনের সফরে সৌদি আরবে রয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। সৌদি আরবের বিখ্যাত জনাদরিয়া উৎসবে অংশ নিতে তিনি সৌদি আরব গিয়েছেন। আর সেখানেই বৈঠক করলেন সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজের সঙ্গে।

বুধবার জানদারিয়া উৎসব স্থলেই সৌদি বাদশার সঙ্গে সুষমার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় দুদেশের মাঝে সম্পর্ক আরও জোরদার করার বিষয়ে কথা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোসায়েদ আল ইবান, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবাইরসহ সুষমা স্বরাজের সফরসঙ্গীরা।

সৌদি আরবে শুরু হয়েছে আল জনাদরিয়া উৎসব। গত বুধবার এই সাংস্কৃতিক উৎসবে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীও উপস্থিত ছিলেন। এই বছর রিয়াদের এই উৎসবের গেস্ট অফ অনার হিসেবে রয়েছে ভারতের নাম। ২ সপ্তাহ ধরে চলবে এই উৎসব। যেখানে উঠে আসবে সৌদি সংস্কৃতি।

এই উৎসবে ভারতের দিক থেকে উঠে আসবে লোকগাথা, ঐতিহ্যবাহী পোশাক, ভারতীয় সুগন্ধি, কনের পোশাক, খাবার ইত্যাদি। পাশাপাশি ভারতের রাজনৈতিক আঙিনার ছবিও উঠে আসবে এই উৎসবে। এছাড়া ভারতীয় সংস্কৃতির সঙ্গে জড়িত কথাকলি, কত্থক, মণিপুরি, ছৌ, ভাঙরা, বলিউড, গুজরাটি, এবং রাজস্থানী নৃত্যও স্থান পাচ্ছে এই উৎসবে। ব্যবসার দিক থেকে টাটা মোটরস, জেট এয়ারওয়েজ এর মতো গুরুত্বপূর্ণ ভারতীয় সংস্থাগুলোর স্টল থাকবে আল জনাদরিয়াতে। সূত্র: আল আরাবিয়া

এদিকে ‘ইসরাইলগামী বিমানগুলোকে নিজের আকাশসীমা ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে সৌদি আরব’ এমন সংবাদকে ভিত্তিহীন বলেছে সৌদি আরব। সৌদি আরবের বেসামরিক বিমান পরিচালনা কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র এ সংবাদকে ভিত্তিহীন বলে বিবৃতি দিয়েছেন। ইসরাইলের একটি গণমাধ্যমে এ সংবাদটি প্রকাশ হয়েছিল।

গত বুধবার ইসরাইলের গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়, ইসরাইলগামী বিমানগুলোকে নিজের আকাশসীমা ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে সৌদি আরব। যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান গত এক বছর আগে ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদার করার যে উদ্যোগ নিয়েছেন তারই আওতায় ইসরাইলকে এ সুযোগ দেয়া হয়েছে।

ইসরাইলের গণমাধ্যম বুধবার জানিয়েছে, রিয়াদ সরকার ভারতের এয়ার ইন্ডিয়াকে সৌদি আরবের আকাশসীমা ব্যবহার করে তেল আবিবে সরাসরি বিমান পরিচালনার অনুমতি দিয়েছে। এর ফলে ভারত থেকে তেল আবিব পৌঁছাতে আড়াই ঘণ্টা সময় বেঁচে যাবে।

বর্তমানে মুম্বাই ও তেল আবিবের মধ্যে ফ্লাইট পরিচালনা করে ইসরাইলের বিমান সংস্থা এল আই এবং ইয়েমেনের দক্ষিণে লোহিত সাগরের ওপর দিয়ে এসব বিমান চলে। তাতে গন্তব্যে পৌঁছাতে বিমানগুলোর আট ঘণ্টা সময় লাগে। আগামী মার্চ মাস থেকে নতুন চুক্তি কার্যকর হবে এবং এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান সৌদি থেকে জ্বালানি নিতে পারবে। পাশাপাশি বিমানের টিকেটের দামও কমাবে সংস্থাটি।

নতুন রুটে বিমানের ফ্লাইট পরিচালনার জন্য এয়ার ইন্ডিয়াকে বড় অংকের অর্থ দেবে ইসরাইল এবং বিনিময়ে ভারত থেকে ইসরাইলে বিপুলসংখ্যক পর্যটক যাবেন বলে আশা করছে তেল আবিব।

গত ৭০ বছর ধরে সৌদি আরব নিজের আকাশসীমার ওপর দিয়ে ইসরাইল অভিমুখে বিমান চলাচল নিষিদ্ধ করে রেখেছে। এ অবস্থায় ইসরাইলী গণমাধ্যমের এ খবর যদি সত্য হয় তাহলে ইহুদিবাদী ইসরাইল ও সৌদি আরবের মধ্যে সম্পর্কের নতুন অধ্যায় শুরু হবে। দুই পক্ষ বেশ আগে থেকেই গোপনে সম্পর্ক উন্নয়নের কাজ করে আসছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ