ঢাকা, মঙ্গলবার 13 February 2018, ১ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৬ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আরএসএস ‘৩ দিনেই সেনাবাহিনী প্রস্তুত করতে পারবে’

১২ ফেব্রুয়ারি, এনডিটিভি, দ্য হিন্দু : একটি সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত করতে ছয় থেকে সাত মাস লেগে যায় কিন্তু আরএসএস ক্যাডারদের প্রস্তুত হতে দুই থেকে তিনদিন লাগবে বলে মন্তব্য করেছেন কট্টরপন্থি হিন্দু গোষ্ঠীটির প্রধান মোহন ভগত।

 রোববার ভারতের বিহার রাজ্যের মুজাফ্ফরপুরে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন ।

“একটি সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত করতে লাগে ছয় থেকে সাত মাস, কিন্তু আমরা দুই-তিনদিনের মধ্যেই যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত হয়ে যেতে পারবো। এটা আমাদের সক্ষমতা এবং শৃঙ্খলাই আমাদের পৃথক করেছে,” সমাবেশে বলেছেন তিনি। তিনি আরও বলেন, “আমাদেরটি একটি সামরিক বা আধাসামরিক সংগঠন না, কিন্তু আমাদের শৃঙ্খলা ঠিক তাদের মতো।” আরএসএসের কর্মী, কৃষক ও কৃষি আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে ১০ দিনের এক সফরে বিহার ও ঝাড়খান্ড রাজ্যে আছেন ভগত।

১৯৬২ সালে সিকিমে চীনের আক্রমণের কথা উল্লেখ করে তিনি দাবি করেন, ভারতীয় সেনাবাহিনী সেখানে পৌঁছানোর আগ পর্যন্ত আরএসএস স্বেচ্ছাসেবকরাই প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল। ভগতের এসব মন্তব্যে ভারতের বিরোধী দলগুলো তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধি বলেছেন, “আরএসএস প্রধানের বক্তব্য প্রতিটি ভারতীয়র জন্য অপমানজনক, কারণ আমাদের জাতির জন্য যারা প্রাণ দিয়েছেন এই বক্তব্যে তাদের প্রতি অশ্রদ্ধা দেখানো হয়েছে। এটি আমাদের পতাকার জন্যও অপমানজনক কারণ এটিকে স্যালুট করা প্রতিটি সৈন্যকে অপমান করা হয়েছে। আমাদের শহীদ ও আমাদের সেনাবাহিনীকে অশ্রদ্ধা দেখানোর জন্য আপনার লজ্জা হওয়া উচিত জনাব ভগত।”  কেরালা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পিনারায়ি বিজয়ন বলেছেন, “ভগতের মন্তব্য নিম্ন মানের, সংবিধান বিরোধী এ বক্তব্যের জন্য তাকে ক্ষমা চাইতে হবে।” 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ