ঢাকা, রোববার 21 October 2018, ৬ কার্তিক ১৪২৫, ১০ সফর ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সরকারের সামনে আনা প্রকল্পগুলো দুর্নীতির প্রতীক: আনু মুহাম্মদ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: যে বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলোকে সরকার সাফল্য হিসেবে দেখাচ্ছে সেসব প্রকল্প সরকারের ‘দুর্নীতি, অনিয়ম ও নিপীড়নের’ প্রতীক হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব আনু মুহাম্মদ।

আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে 'সুন্দরবন বিনাশী রামপাল প্রকল্প বাতিল, জাতীয় কমিটির বিকল্প প্রস্তাবনা বাস্তবায়ন ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি'তে আয়োজিত মিছিল ও সমাবেশে এসব কথা বলেন আনু মুহাম্মদ।  

অর্থনীতির এ অধ্যাপক বলেন, ‘যেগুলোকে সরকার সাফল্য হিসাবে দেখাচ্ছে এ প্রকল্পগুলো সরকারের এক একটি কলঙ্ক হিসেবে ইতিহাসে লিখিত থাকবে। কারণ এসব প্রকল্প হচ্ছে দুর্নীতির এক একটি প্রতীক। এসব প্রকল্প হচ্ছে অনিয়মের প্রতীক। এসব প্রকল্প হচ্ছে নিপীড়নের প্রতীক। এসব বিদ্যুৎ প্রকল্প যদি সত্যিই উন্নয়নের চালিকাশক্তি হতো তাহলে রামপাল বিষয়ে কোনো কথা বলা যাবে না- এ রকম একটি পরিস্থিতি সরকারকে তৈরি করতে হতো না।’ 

দায়মুক্তি আইনের মাধ্যমে সরকার বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাত ধীরে ধীরে বেসরকারীকরণ করে ফেলছে বলেও দাবি করেন আনু মুহাম্মদ। 

আনু মুহাম্মদ বলেন, “এর বাজেট নিয়ে কোনো প্রশ্ন আইনগতভাবে তোলা যাবে না, এই প্রকল্পগুলোর ব্যয়ের কোনো ঠিক নাই, পরিবেশগত সমীক্ষার কোনো ঠিক নেই। এর কারণে বাংলাদেশ কত ভয়াবহ বিপদে পড়বে সেই সম্পর্কে আলোচনার কোনো সুযোগ নেই।”

এলএনজি ও আমদানিনির্ভর কয়লার মাধ্যমে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে সামনের দিনে বিদ্যুতের দাম সরকার আরো বাড়ানোর চেষ্টা করবে বলেও মনে করেন তিনি। এই পরিস্থিতি থেকে উত্তোরণে জাতীয় কমিটির দেওয়া বিকল্প প্রস্তাবনা বাস্তবায়নের দাবি করেন তিনি।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কারণে স্থানীয় ৪০ থেকে ৫০ লাখ মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় পড়ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

“আমাদের হিসাবে প্রায় ৪০ থেকে ৫০ লাখ লোক সম্পূর্ণ নিরাপত্তাহীনতার মধ্য বাস করছে। সেই মানুষেরা এই বিষয়ে কিছুই জানে না। তাদেরকে কিছুই বলা হয় না। ওইখানে কোনো কথা বলতে গেলে পুলিশ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, আওয়ামী লীগ সবাই হামলা নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে।”

সমাবেশ শেষে প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল হাই কোর্টের কদম ফোয়ারা ঘুরে পল্টন মোড় হয়ে সিপিবি কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ