ঢাকা, শনিবার 17 February 2018, ৫ ফাল্গুন ১৪২৪, ৩০ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রোনালদোর ‘জাদুকরী পেনাল্টি’ গোল

বুধবার প্যারিস সেন্ত জার্মেইর বিপক্ষে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর জোড়া গোলে জিতলো রিয়াল মাদ্রিদ। চ্যাম্পিয়নস লিগে দুর্দান্ত ফর্মের ধারাবাহিকতা ধরে রেখে জেতালেন দলকে। রেকর্ডও গড়েছেন একাধিক। ম্যাচটা ছিল শুধুই রোনালদোময়। কিন্তু এখানেই শেষ নয়। দুইদিন পর উন্মোচিত হলো ফরাসি জায়ান্টদের বিপক্ষে তার পেনাল্টি গোলটি ছিল ‘অকল্পনীয় ও জাদুকরী’। সাদা চোখে তার ডান পায়ের শটে নেওয়া লক্ষ্যভেদী পেনাল্টি ছিল আর আট-দশটার মতোই। কিন্তু না, সেটায় ছিল জাদুর ছোঁয়া। শেষ ষোলোর প্রথম লেগে রিয়াল পিছিয়ে পড়ার পর ওই গোলে সমতা ফেরান পর্তুগিজ তারকা। তার সাবেক ম্যানইউ সতীর্থ রিও ফার্ডিন্যান্ড যেটাকে বলেছেন ‘ভলি’ পেনাল্টি! এমন পেনাল্টির নাম কেউ কখনও শুনেছে? কেউ না শুনলেও দেখিয়ে দিলেন রোনালদো। শট নেওয়ার আগে সেকেন্ডেরও কম সময়ে বল কিঞ্চিৎ ভাসালেন উপরে, তারপর ডান পায়ে বল পাঠালেন জালে। রেফারি তো দূরের কথা, পিএসজি গোলরক্ষক আলফোন্সে আরেয়োলাও ধরতে পারেননি কী জাদু দেখিয়ে গোলটা করলেন তিনি! স্লো-মোশন রিপে¬তে দেখা গেছে- রোনালদো দৌড়ে এসে বাঁ পা বলে স্পর্শ না করে তার খানিকটা পাশে মাটিতে জোরে আঘাত করলেন, হালকা শূন্যে ভাসলো বল। 

এরপর নিলেন ডান পায়ের লক্ষ্যভেদী শট। সবকিছু ঘটলো চোখের পলক ফেলার আগেই। আইন অনুযায়ী, পেনাল্টি শট নেওয়ার আগে বল নড়লে আবার শট নিতে হয়। কিন্তু রোনালদোর জাদু অন্য সবার মতো রেফারিদের চোখেও পড়েনি। সাবেক প্রিমিয়ার লিগ রেফারি গ্রাহাম পোল বলেছেন, ‘এটা ধরতে না পারার দায় আপনি রেফারিকে দিতে পারেন না, কারণ সঠিক সময়ে সেটা খেয়াল করা অসম্ভব।’ এই জাদুকরী বিদ্যা রোনালদো রপ্ত করেছেন ম্যানইউতে থাকার সময়ই। রিও ফার্ডিন্যান্ড জানালেন সেই রহস্য, ‘সে ম্যানইউর অনুশীলনে প্রায় সময়ই এমনটা করতো।’ ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ