ঢাকা, শনিবার 17 February 2018, ৫ ফাল্গুন ১৪২৪, ৩০ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাজশাহীতে গ্রেপ্তারকৃত সন্তানের সন্ধান দাবিতে পরিবারের বিবৃতি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র রমজান আলীকে গ্রেপ্তারের পর অস্বীকার ও আদালতে হাজির না করায় উদ্বেগ প্রকাশ এবং অবিলম্বে তার সন্ধান দাবি করে বিবৃতি দিয়েছেন তার পরিবার।
গত বৃহস্পতিবার রাতে দেয়া বিবৃতিতে গ্রেপ্তারকৃত রমজান আলীর পিতা ইয়াজউদ্দিন শেখ বলেন, গত বুধবার রাত ৯টায় মির্জাপুর পুলিশ ফাঁড়ি থেকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাকে গ্রেপ্তার করে মতিহার থানায় নিয়ে যায় এবং গত বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টা পর্যন্ত সে মতিহার থানায় ছিল। একই দিন সকাল ৭টায় তার সাথে আমার পরিবারের সাক্ষাৎ হয় এবং সকালের খাবারও দেয়া হয়। পরে তাকে মতিহার থানা থেকে ডিবি অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু ডিবি অফিসে নেয়ার পর তাকে গ্রেপ্তারের কথা অস্বীকার করছে পুলিশ এবং পরিবারের সদস্যদের দেখা করতে দিচ্ছে না। আইন অনুযায়ী তাকে আদালতেও হাজির করা হয়নি। তাকে গ্রেপ্তারের পর অস্বীকার, দেখা করতে না দেয়া এবং আদালতে হাজির না করা প্রচলিত আইনে বেআইনি। এমনকি উচ্চ আদালতের নির্দেশেরও সুষ্পষ্ট লঙ্ঘন। যা অস্বাভাবিক বিষয়। আমার ছেলের সাথে রবিউল ও রকি নামে দুইজনকে গ্রেফতার করলেও তাদেরকে কোর্টে হাজির করা হয়। কিন্তু আমার সন্তানকে তুলেনি। আমি এখন সন্তানের জীবন নিয়ে শঙ্কিত।
তিনি বলেন, আমরা এদেশের নাগরিক। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং সকল আইনি সুবিধা গ্রহণ করার অধিকার আমাদের আছে। কিন্তু এখানে আইনি অধিকার থেকে আমরা বঞ্চিত হচ্ছি। আমি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের কাছে আমার সন্তানের নিরাপত্তা দাবি করছি। একই সাথে তিনি সন্তানের সন্ধানের জন্য সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ