ঢাকা, রোববার 25 February 2018, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৪, ৮ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সব কর্মসূচির জন্য অনুমতি কেন?

গতকাল শনিবার নয়াপল্টন বিএনপি কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার: সব কর্মসূচির জন্য অনুমতি নিতে হবে কেন? বিএনপি তো ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করেনি। সরকারের কাছে এমন প্রশ্ন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের। গতকাল শনিবার দুপুরে ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কথা বলেন।
সাংবাদিক সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপির নেতা-কর্মীরা তো রাস্তায় নামেননি, তারা ১৪৪ ধারাও ভঙ্গ করেননি। তাহলে বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ হামলা করবে কেন? তিনি বলেন, ‘ফুটপাতে দাঁড়িয়ে কালো পতাকা প্রদর্শন করতে পারব না কেন? এটা তো আমার মৌলিক অধিকার। তাহলে কি ঘরের মধ্যে কথা বলতেও পুলিশের অনুমতি লাগবে?’
ফখরুল ইসলাম বলেন, সরকার উসকানি দিয়ে পরিস্থিতি ঘোলাটে ও সংঘাতপূর্ণ করতে চাইছে। কিন্তু বিএনপি শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি চালিয়ে আসছে। সরকার যে ধরনের আচরণ করছে, তাতে উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য তারা দায়ী থাকবে। তিনি বলেন, শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ বিনা উসকানিতে হামলা চালিয়ে অসংখ্য নেতা-কর্মীকে আহত ও আটক করেছে। এ ঘটনায় তিনি তীব্র ঘৃণা ও ধিক্কার জানান।
ফখরুল ইসলাম বলেন, সরকার শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বাধা না দেওয়ার কথা বললেও কালো পতাকা প্রদর্শনের মতো কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে তারা প্রমাণ করেছে, তারা ‘মুনাফেকি’ গণতন্ত্র করে। তিনি বলেন, মহিলাদের ওপর অত্যাচার চলছে, মহিলাদের ওপর নির্যাতন, আপনারা দেখছেন মাটিতে ফেলে দিয়ে পেটানো হয়েছে। মহিলা পুরুষদের অন্যায়ভাবে পুরুষ পুলিশরা গ্রেফতার করেছে, সেটা আমরা কোনোদিন দেখিনি। আমাদের অফিসে ঢুকে গলায় পারা দিয়ে তাদেরকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ... এই যদি অবস্থা হয় এই দেশে, তারা যে গণতন্ত্রের কথা বলে, গণতন্ত্র মোনাফেকি ছাড়া আর কিছু না। ফখরুল বলেন, আজকে এমন একটা জায়গা নেই, এমন একটা ওয়ার্ড নেই যেখানে আমাদের নেতা-কর্মীদের বিরোধীদলের নেতকর্মীদের মিথ্যা মামলা দেয়া হচ্ছে না, গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না।
মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেন, পুরুষ পুলিশ কার্যালয়ের ভেতরে ঢুকে দলের মহিলা নেতা-কর্মীদের টেনেহিঁচড়ে নিয়ে গেছে। তিনি বলেন, আমরা প্রতিবাদ করতে পারব না, কালো পতাকা দেখিয়ে, এটা মৌলিক ব্যাপার একটা, ফান্ডমেন্টাল জিনিস, ফান্ডমেন্টাল যে রাইট, সে রাইট তারা কেড়ে নিতে চায়। তাহলে কি এখন প্রেস কনফারেন্স করতে অনুমতি লাগবে? আমার বাড়িতে আমার চার-পাঁচ জন নেতার সাথে কথা বলার কি অনুমতি লাগবে?-জানতে চান বিএনপি মহাসচিব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ