ঢাকা, সোমবার 26 February 2018, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৪, ৯ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

না ফেরার দেশে শ্রীদেবী

২৫ ফেব্রুয়ারি, এনডিটিভি : বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেত্রী শ্রীদেবী মারা গেছেন। গত শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে দুবাইয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৪ বছর। শ্রীদেবীর মৃত্যুতে বলিউডে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শ্রীদেবীর মৃত্যুর সংবাদ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তাঁর স্বামী বনি কপুরের ছোট ভাই সঞ্জয় কাপুর। ১৯৬৩ সালের ১৩ আগস্ট তামিলনাড়ুতে জন্ম নেওয়া শ্রীদেবীর আসল নাম শ্রী আম্মা ইয়াংগার আয়য়াপন।

গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, একটি পারিবারিক অনুষ্ঠানে অংশ নিতে দুবাই আসেন শ্রীদেবী। তাঁর সঙ্গে ছিলেন স্বামী ও ছোট মেয়ে। সেখানে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন শ্রীদেবী।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বলিউড তারকারা অভিনেত্রীর পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। 

টুইট বার্তায় তারা লিখেছেন-

অমিতাভ বচ্চন: জানি না কেন এত অসহায় লাগছে।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া: আমার বলার কোনও ভাষা নেই। শ্রীদেবীকে যাঁরা ভালবাসতেন, সকলের প্রতি সমবেদনা। একটা কালো দিন।

জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ: শ্রীদেবী, আমরা একজন আইকনকে এত তাড়াতাড়ি হারালাম।

সিদ্ধার্থ মালহোত্রা: শ্রীদেবী ম্যাম নেই শুনে সত্যিই শকড্।

আদনান সামি: শেষরাতে শ্রীদেবীর খবরটা শুনে আমি আর কথা বলার মতো অবস্থায় নেই। অসাধারণ প্রতিভা। রেস্ট ইন পিস। 

সুস্মিতা সেন: আমি শুনলাম শ্রীদেবী ম্যাম চলে গিয়েছেন। কান্না থামাতে পারছি না।

রবিনা টন্ডন: শকিং একটা খবরে ঘুম ভাঙল। কেন এমন হল? এত তাড়াতাড়ি চলে গেল শ্রী!

নায়ক নির্ভর হিন্দি সিনেমার সংজ্ঞাটাই পাল্টে দিয়েছিলেন শ্রীদেবী। 'চাঁদনি', 'লমহে', 'মিস্টার ইন্ডিয়া', 'নাগিনা' হোক বা হালফিলের 'ইংলিশ ভিংলিশ' এবং 'মম'Í প্রায় একার হাতেই ইন্ডাস্ট্রিকে একের পর এক সুপারহিট ফিল্মের উপহার দিয়েছেন তিনি।

শিশুশিল্পী হিসেবে বলিউডে অভিষেক হয় শ্রীদেবীর।  চিত্তাকর্ষক চোখ, রুপালি পর্দায় উপস্থিতি আর অভিনয় দক্ষতা তাঁকে তুমুল জনপ্রিয়তা এনে দেয়। তিনি হিন্দি ছবির পাশাপাশি তামিল, তেলেগু ও মালায়লম ছবিতে সমানতালে কাজ করেছেন। ২০১৩ সালে ভারত সরকার তাঁকে পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ