ঢাকা, শুক্রবার 2 March 2018, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৪, ১৩ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

২৫ এপ্রিল চট্টগ্রামে এলএনজি গ্যাস সরবরাহ শুরু হবে 

চট্টগ্রাম অফিস: প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী বলেছেন, বিদ্যুতের সরবরাহ ব্যবস্থা উন্নয়নের লক্ষ্যে বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক উদ্বোধনের পর ১৫ মে থেকে পূর্ণাঙ্গভাবে এলএনজি গ্যাস পাবে চট্টগ্রাম। ফলে গ্যাস সংক্রান্ত সব সমস্যা দূর হবে এবং একই সাথে বিদ্যুতের উৎপাদনও বৃদ্ধি পাবে।

 তিনি ক্যাপটিভ পাওয়ার স্থাপনের ক্ষেত্রে উৎসাহিত করেন এবং সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে প্রায় ৭০% ব্যয় সাশ্রয়ের পরামর্শ প্রদান করেন। উপদেষ্টা জানান এলএনজি গ্যাসের মূল্য গ্রহণযোগ্য পর্যায়ে রাখার লক্ষ্যে সরকার কর অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে এবং নতুন করে সরবরাহ লাইন ও নেটওয়ার্ক স্থাপন করা হবে। চট্টগ্রাম সত্যিকার অর্থে হাব এ রূপান্তরিত হবে বলে তৌফিক-ই-ইলাহী দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন।    

তিনি গত বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারি বিকালে দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র বোর্ড অব ডাইরেক্টর্স’র ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের সাথে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারস্থ বঙ্গবন্ধু কনফারেন্স হলে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আরও বলেন-২৫ এপ্রিল চট্টগ্রামে এলএনজি গ্যাস সরবরাহ উদ্বোধন করা হবে। 

চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুুবুল আলম’র সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ও কর্ণফুলী গ্যাস ডিষ্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড’র পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মোঃ জাকির হোসেন এবং পেট্রোবাংলা চেয়ারম্যান আবুল মনসুর মোঃ ফয়েজউল্লাহ এনডিসি বক্তব্য রাখেন। ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চেম্বার সহ-সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমেদ, প্রাক্তন সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আলী আহমেদ, প্রাক্তন পরিচালক মাহফুজুল হক শাহ ও ডা. মঈনুল ইসলাম, বিজিএমইএ’র প্রাক্তন ১ম সহ-সভাপতি নাসির উদ্দীন চৌধুরী ও প্রাক্তন পরিচালক হেলাল উদ্দিন চৌধুরী, বিকেএমইএ’র সাবেক পরিচালক শওকত ওসমান, বিএসআরএম’র চেয়ারম্যান আলীহুসেইন আকবর আলী, আবুল খায়ের গ্রুপ’র ইডি ব্রিগে. শহীদুল্লাহ চৌধুরী (অবঃ), কনফিডেন্স সিমেন্টের এমডি জহির উদ্দিন আহমেদ।   

চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম গ্যাসের ক্রমবর্ধমান চাহিদার বিপরীতে বর্তমানে রিজার্ভ গ্যাস ও আমদানিকৃত এলএনজি কতটুকু পূরণ করতে সক্ষম হবে সে বিষয়ে গবেষণা ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন। একই সাথে গ্যাসের উৎসস্থল যেখানেই হোক না কেন সমগ্র দেশে ইআরসির মাধ্যমে সমহারে ট্যারিফ নির্ধারণের অনুরোধ জানান। তিনি গ্যাস সংযোগের ক্ষেত্রে ৩ মাসের পরিবর্তে ২ মাসের ট্যারিফ জমা রাখা, নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতের ব্যবস্থা করা, জ্বালানি তেলের মূল্য হ্রাস এবং নতুন গ্যাসকূপ অনুসন্ধান ও উত্তোলনের সুপারিশ করেন। মাহবুবুল আলম তাঁর বক্তব্যে নিরবচ্ছিন্ন ও কোয়ালিটি বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করা জরুরি বলে বিদ্যুতের প্রিপেইড বিল প্রদান এবং রক্ষণাবেক্ষণ সেবাকে ভোক্তাবান্ধব করার অনুরোধ জানান। এছাড়া কেজিডিসিএল পরিচালনা পর্ষদে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে চেম্বারের প্রতিনিধিত্ব অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানান। চেম্বার সহ-সভাপতি সৈয়দ জামাল আহমেদ দক্ষিণ চট্টগ্রাম বিশেষ করে কর্ণফুলী উপজেলায় গ্যাস সংযোগ প্রদানের জোর দাবি জানান এবং গৃহস্থালী খাতে গ্যাস সরবরাহ নিয়মিত রাখার অনুরোধ করেন। 

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোঃ জাকির হোসেন এলএনজি গ্যাসের মূল্য যৌক্তিকহারে নির্ধারণ করা হবে বলে জানান। পেট্রোবাংলা চেয়ারম্যান আবুল মনসুর মোঃ ফয়েজউল্লাহ ব্যবসায়ীদের অতি দ্রুত গ্যাস সংযোগ গ্রহণের আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ