ঢাকা, বৃহস্পতিবার 8 March 2018, ২৪ ফাল্গুন ১৪২৪, ১৯ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাজধানীতে অসহনীয় যানজট

গতকাল বুধবার রাজধানীর অধিকাংশ সড়কে ছিল যানজট। কাকরাইল এলাকার দৃশ্য -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : সাতই মার্চে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের জনসভাকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে অসহনীয় যানজটের সৃষ্টি হয়। গতকাল বুধবার সকাল থেকেই রাজধানীর প্রাণকেন্দ্রে এই জনসভাকে কেন্দ্র করে নগরবাসী অবর্ণনীয় দুর্ভোগে পড়েন। গতকাল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের চারদিকের রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়।
শাহবাগ থেকে মৎস্যভবন, শাহবাগ-দেয়েল চত্বর, বাংলামোটর মোড় থেকে কাকরাইল মসজিদ হয়ে মৎস্যভবন মোড় পর্যন্ত রাস্তা সাধারণ যান চলাচলের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। এতে সাইন্স ল্যাবরেটরি থেকে মতিঝিলগামী যানবাহনগুলোকে অন্যপথে যেতে হয়।
এছাড়া কাওরান বাজার মোড়, বাংলামোটর মোড় মতিঝিল ও সচিবালয়গামী গাড়িগুলোকে ঘুরিয়ে দিয়ে মগবাজার সড়ক দিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়।
অন্যদিকে মতিঝিল ও কাকরাইল থেকে যে গাড়িগুলো ধানমন্ডি, মোহাম্মদপুর, বনানী এবং মিরপুরগামী গাড়িগুলোকেও বিকল্প সড়কের দিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এতে করেও ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়।
এ যানজটের কারণে মানুষের  কষ্টের জন্য নগরবাসীর কাছে দুঃখপ্রকাশ করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। গতকাল দুপুর আড়াইটার সময় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ শুরুর ঘোষণা দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, সাত মার্চের মতো বিশেষ দিনগুলোর কর্মসূচি নির্দিষ্ট দিনেই পালন করতে হবে।
রাজধানীবাসীর প্রতি দুঃখপ্রকাশ করে তিনি বলেন, প্লিজ, সহনশীল দৃষ্টিতে দিবসটি পালনে সহায়তা করবেন। তার বক্তব্যের পরে ধর্মগ্রন্থ পাঠের মধ্যে দিয়ে সমাবেশের কার্যক্রম শুরু হয়।
সভা শুরু আগেই সভাকে কেন্দ্র করে আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় তীব্র যানজট দেখা গেলেও অনেক এলাকা আবার ফাঁকা দেখা যায়। বুধবার কর্মদিবস থাকলেও রাজধানীতে অন্যদিনের মতো গণপরিবহন কম ছিল। যেসব গাড়ি ছিল আসছে তার অধিকাংশই জনসভামুখী। গাড়ির সংখ্যা কম থাকায় অফিসগামী মানুষ পড়েন বিপাকে। সোনারগাঁও মোড় থেকে প্রধান বিচারপতির বাসা হয়ে মৎস্যভবন, হাইকোর্ট, কদম ফোয়ারা হয়ে পল্টন পর্যন্ত সড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়।
তবে যেসব এলাকায় যানবাহন বন্ধ করে দেয়া হয় সেসব এলাকা ফাঁকা ছিল। যাতায়াতকারী মানুষরা যানবাহনের অভাবে দুর্ভোগের শিকার হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ