ঢাকা, বৃহস্পতিবার 8 March 2018, ২৪ ফাল্গুন ১৪২৪, ১৯ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

নিজ কর্মীকে পিটিয়ে জখম করল ছাত্রলীগ

ইবি সংবাদদাতা : পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে নিজ কর্মীকে পিটিয়ে জখম করেছে ছাত্রলীগ। বুধবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত ছাত্রলীগ কর্মীকে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল থেকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে লোক প্রশাসন বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের নাকিব ফাহিম আশিকের সাথে শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি শাহিনুর রহমান শাহিন গ্রুপের কয়েকজন কর্মীর সাথে দ্বন্দ্ব চলছিল। বুধবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে আশিক বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে অবস্থান করছিল। এসময় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি গ্রুপের বিল্লাল, রিজভি,সালাম,মোস্তফা, লিংকন, বহিরাগত কর্মী লিটনসহ ১০/১২ জন কর্মী আশিককে রড় ও লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর শুরু করে। তাদের উপর্যুপুরি মারধরে আশিক মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে তাকে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

সভাপতি গ্রুপের কর্মী রিজভী আহমেদ পাপনের দাবি,‘আশিক বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সম্পর্কে কটুক্তি করেছিল। এজন্য তাকে মারধর করা হয়েছে।’

ভুক্তভুগী নাকিম ফাহিম আশিক বলেন,‘আমি আগে সভাপতি গ্রুপে ছিলাম। বর্তমানে তার গ্রুপ থেকে রেবিয়ে এসেছি এজন্য আমাকে মারধর করেছে। তাছাড়া সভাপতির গ্রুপের কর্মী বিল্লালের কাছে আর্থিক লেনদেন ছিল। একারণে তার সাথে পূর্ব শত্রুতা ছিল। তাদের হামলায় আমি মাথায়, হাতে, পিঠে ও পায়ে গুরুতর আঘাত পেয়েছি।’

এঘটনার পর ভুক্তভুগী ছাত্রলীগ কর্মী নাকিব ফাহিম আশিক নিজ বিভাগের সভাপতি বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। লিখিত অভিযোগে ওই শিক্ষার্থী হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে। এঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর রহমান শাহিনকে কয়েকবার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবর রহমান বলেন,‘এট্ িঅত্যন্ত ন্যাক্কারজনক ঘটনা। আমরা প্রশাসনিকভাবে এর ব্যবস্থা নিব।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ