ঢাকা, রোববার 11 March 2018, ২৭ ফাল্গুন ১৪২৪, ২২ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

প্রবীণ সাংবাদিক সৈয়দ মাহমুদের ইন্তিকাল

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা বাসসের সাবেক বার্তা সম্পাদক ও প্রবীণ সাংবাদিক সৈয়দ মাহমুদ ইন্তিকাল করেছেন। (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টায় ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তিকাল করেন। দু’দফা জানাযা শেষে গতকাল শনিবার  বিকেলে আজিমপুর কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। তিনি স্ত্রী ও দুই কন্যাসহ বহু আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
মরহুমের প্রথম নামাযে জানাযা গতকাল বাদ জোহর মিরপুর সাংবাদিক আবাসিক এলাকার মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় প্রেস ক্লাবে মরহুমের দ্বিতীয় নামাযে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় জাতীয় প্রেস ক্লাব, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন এবং ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে মরহুমের কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়।
প্রেস ক্লাবে জানাযার আগে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, দৈনিক সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, প্রবীণ সাংবাদিক ও কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন বিএফইউজে সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, বিএফইউজের মহাসচিব ওমর ফারুক, জাতীয় প্রেস ক্লাবের, সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন প্রমুখ মরহুমের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন।
 সৈয়দ মাহমুদের ইন্তিকালে জাতীয় প্রেস ক্লাব, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতারা শোক জানিয়েছেন। বিবৃতিতে তারা শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। সৈয়দ মাহমুদ জাতীয় প্রেস ক্লাব, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য ছিলেন এবং তৃতীয় ওয়েজবোর্ড রোয়েদাদ কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
বাসস হতে অবসরগ্রহণের পর তিনি দীর্ঘ দিন বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন। সৈয়দ মাহমুদ বাংলাদেশ প্রেস ইন্টারন্যাশনালের (বিপিআই) মাধ্যমে সাংবাদিকতা শুরু করেন এবং পরে বাসসে যোগ দেন। এছাড়াও তিনি দৈনিক সংবাদ, ইত্তেফাক, পূর্বদেশসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে কাজ করেছেন। বাংলাদেশ স্কাউটসসহ বিভিন্ন ক্রীড়া, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সক্রিয়ভাবে যুক্ত ছিলেন তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ