ঢাকা, মঙ্গলবার 13 March 2018, ২৯ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৪ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

এক সপ্তাহের মধ্যে অনুশীলন করতে পারবেন সাকিব -দেবাশিষ

স্পোর্টস রিপোর্টার : ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে আঙ্গুলের চোট পান সাকিব। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে ইনজুরিতে পড়ে লঙ্কানদের বিপক্ষে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি থেকে ছিটকে যান সাকিব। এরপর নিদাহাস ট্রপিতে প্রথমে সুযোগ পেলেও পরবর্তীতে আঙ্গুলের অবস্থা ভালো না হওয়ায় দল থেকে বাদ পড়েন তিনি। এরই মধ্যে ব্যাংককে দু’জন অর্থোপেডিক সার্জনের শরণাপন্ন হয়েছিলেন তিনি। সেখানে দুই সপ্তাহ সাকিবের আঙ্গুলে থেরাপি দেয়ার কথা বলা হয়েছিল। পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত পাল্টে অস্ট্রেলিয়ায় থেরাপি দেয়ার কথা জানায় বোর্ড। এরপরই অস্ট্রেলিয়ার অর্থোপেডিক সার্জনকে দেখান সাকিব।

শ্রীলংকায় এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দল। তাদের সঙ্গে নেই নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। গতকাল মিরপুর স্টেডিয়ামে এসেছিলেন সাকিব আল হাসান। শেখ জামাল ও খেলাঘরের ক্রিকেট লিগ ম্যাচের বিরতিতে ব্যাট নিয়ে কিছুক্ষণ প্রাকটিসও করেছেন। সাকিবের দলে ফেরা নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী জানালেন, শিগগিরই অনুশীলন করার মতো ফিট হবেন সাকিব। তবে ম্যাচ খেলার জন্য ফিট হতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে। সাকিবের চিকিৎসার শেষ অবস্থা নিয়ে বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী বলেন, 'সাকিব ৯ মার্চ মেলবোর্নের অর্থোপেডিক সার্জন ডাক্তার ডেভিড হয়ের সঙ্গে দেখা করেন। ওখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর ডাক্তার সিদ্ধান্ত নেন বড় কোনও পদক্ষেপ নেয়ার প্রয়োজন এই মুহূর্তে নেই। তিনি প্রদাহ বিরোধী একটি ইনজেকশন দিয়েছেন। এই ওষুধটা ধীরে ধীরে কার্যকর হবে।’ সাকিব আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে অনুশীলন করতে পারবেন জানালেন দেবাশিষ। তিনি বলেন, ‘ওষুধটা কার্যকরী হয় ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে। এর মধ্যেই সাকিব পুরোপুরি অনুশীলনে ফেরার জন্য ফিট হতে পারবেন। তবে মাঠে নামার ফিটনেস ফিরে পেতে আরও একটু সময় লাগবে। কেন না মনস্তাত্ত্বিক একটা ব্যাপার থেকেই যায়। সেটা অবশ্যই সাকিবের ব্যাপার। আপাতত স্পোর্টিং ফিটনেস ফিরিয়ে আনতে আমরা চেষ্টা করছি।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ