ঢাকা, বৃহস্পতিবার 15 March 2018, ১ চৈত্র ১৪২৪, ২৬ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

প্রধান বিচারপতির পদত্যাগের দাবিতে আইনজীবীদের বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে  দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের শুনানিকালে তার আইনজীবীদের বক্তব্য না শোনায় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।
গতকাল বুধবার খালেদা জিয়ার জামিন স্থগিত করে আপিল বিভাগ আদেশ দেওয়ার পরপরই আদালত চত্বরে তারা এ বিক্ষোভ করেন।
বিক্ষোভে আইজনীবীরা প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের পদত্যাগের দাবিতে স্লোগান দেন। এসময় তারা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিও জানান।
গতকাল বুধবার জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন রোববার পর্যন্ত স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। এ সময়ের মধ্যে নিয়মিত লিভ টু আপিল (আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) করতে বলা হয়েছে।
প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের চার সদস্যের  বেঞ্চ এ আদেশ দেন। জামিন স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদকের করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।
তবে আসামী পক্ষের বক্তব্য না শুনেই এই আদেশ দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।
আপিল বিভাগের স্থগিতাদেশের পরে খালেদা জিয়ার আইনজীবী এডভোকেট জয়নুল আবেদীন এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের বক্তব্য না শুনেই দেশের সর্বোচ্চ আদালত এই ধরনের আদেশ দিয়েছেন। এই আদেশে আমরা ব্যথিত। আদালতের এই আদেশের বিষয়ে কী ভাষায় আপনাদের কাছে বর্ণনা করবো, তা আমরা খুঁজে পাচ্ছি না।
জয়নুল আবেদীন বলেন, আমরা ধারণা করেছিলাম চিরাচরিতভাবে আপিল বিভাগ যেটা করেন, উভয়পক্ষের বক্তব্য শোনেন, তারপর আদেশ দেন। আজকের বিষয়টি হলো, আপিলটি দুদকের আইনজীবী উপস্থাপন করার সঙ্গে সঙ্গে আদালত বললেন যে, আগামী রোববার সিপি (লিভ টু আপিল বা আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) ফাইল করেন। জামিন আগামী রোববার পর্যন্ত স্থগিত থাকবে। আমাদের কোনো বক্তব্য তিনি (প্রধান বিচারপতি) শুনলেন না। কোনো রকম আইনগতভাবে এই মামলাটি মোকাবিলা করার জন্য ন্যূনতম সুযোগ আমাদের দিলেন না। না দিয়ে স্টে অর্ডার অনুমোদন করলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ