ঢাকা, বৃহস্পতিবার 15 March 2018, ১ চৈত্র ১৪২৪, ২৬ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জনগণ বিএনপির ডাকে সাড়া দেয়নি -ওবায়দুল কাদের

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নের বিষয়ে আওয়ামী লীগ এখনও সিদ্ধান্ত নেয়নি বলে জানিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ ব্যাপারে বিভ্রান্তি না ছড়াতেও নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
গতকাল বুধবার দুপুরে টাঙ্গাইল আওয়ামী লীগ আয়োজিত কর্মিসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা জানান ক্ষমতাসীন দলের নেতা। টাঙ্গাইল পৌর স্মৃতি উদ্যানে জেলা ও উপজেলার নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে কর্মিসভা পরিণত হয় জনসভায়। এ সময় পৌর উদ্যান কানায় কানায় ভরে যায়।
টাঙ্গাইল আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুকের সভাপতিত্বে কর্মিসভায় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মণি, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাঁপা, তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এমপি, টাঙ্গাইল সদর আসনের সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জোয়াহেরুল ইসলাম।
আগামী ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীরা এখন এলাকায় সক্রিয়। এদের মধ্যে কেউ কেউ দলের পক্ষ থেকে সবুজ সংকেত পাওয়ার দাবি করছেন।   নানা প্রচারপত্রে নিজেদের দাবিও তুলে ধরছেন তারা।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘মনোনয়নের ব্যাপারে বিভ্রান্তি ছড়াবেন না। এ ব্যাপারে এখনও দলীয়ভাবে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। ব্যানার, বিলবোর্ড ও পোস্টার লাগালেই মনোনয়ন পাওয়া যায় না।’
আওয়ামী লীগকে আরও শক্তিশালী করতে হলে ঘরে ঘরে গিয়ে নারী ও তরুণ ভোটারদেরকে দলের সদস্য বানাতে কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান আওয়ামী লীগ নেতা। বলেন, ‘নারী ও তরুণ ভোটাররাই আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিজয়ের হাতিয়ার হবে। নির্বাচনকে সামনে রেখে যে কোনো ধরনের কোন্দল থেকে বিরত থাকারও নির্দেশ দেন কাদের। বলেন, ‘যে কোনোভাবে দলের নেতাকর্মীদের ঐক্য থাকতে হবে। নেতাকর্মীরা ঐক্য থাকলে কোনো নির্বাচনেই আওয়ামী লীগকে পরাজিত করা যাবে না।’
চিহ্নিত সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, মাদকাসক্ত ও স্বাধীনতাবিরোধীরা আওয়ামী লীগের সদস্য হতে পারবে না জানিয়ে কাদের বলেন, ‘নেতা বা এমপি বানানো এমনকি দল ভারী করার জন্য এদের প্রয়োজন নেই। দলের স্বচ্ছতার জন্য চাই ভদ্র লোক।
দলের বিভিন্ন পর্যায়ের কমিটিতে ত্যাগি নেতা-কর্মীদের স্থান দেয়ার নির্দেশ দেন আওয়ামী লীগ নেতা। বলেন, ‘কর্মীরা বাঁচলে আওয়ামী লীগ বাঁচবে। কারণ কর্মীরা আওয়ামী লীগের প্রাণ। কর্মীদের ত্যাগ তিতীক্ষার বদৌলতেই দল শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে।... পকেট কমিটি দিয়ে দল শক্তিশালী করা যায় না।
‘দলে অতিথি পাখিদের কোন স্থান নেই। দুঃসময়ে হাজার পাওয়ার বাতি দিয়েও এদেরকে খুঁজে পাওয়া যাবে না। দুঃসময়ের কর্মীরাই বঙ্গবন্ধুর খাঁটি কর্মী। এদের কোণঠাসা করবেন না।’
 নেতাকর্মীদের সতর্ক করে কাদের বলেন, ‘আদর্শ নিয়ে চলবেন। ক্ষমতা চিরকাল থাকে না। এই সময় সময় না আরো সময় আছে। ক্ষমতার অপব্যবহার করলে দুঃসময়ে দল দুর্বল হয়ে যায়।
বিএনপিকে নির্বাচনে অংশ নিয়ে জনপ্রিয়তার পরীক্ষা দেয়ার আহ্বান জানান ক্ষমতাসীন দলের নেতা। সে পরীক্ষায় বিএনপি ফেল করবে বলেও মনে করেন তিনি। বলেন, ‘মানুষ পুড়িয়ে মারা দলকে এ দেশের জনগণ ক্ষমতায় চায় না। বিএনপি কার্যক্রম প্রমাণ করেছে এরাই জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক।
বিএনপিকে আন্দোলনের হুমকি না দেয়ারও পরামর্শ দেন কাদের। বলেন, ‘জনগণ বিএনপির ডাকে সাড়া দেয়নি। বিএনপির আত্মঘাতী, সাম্প্রদায়িকতা ও নেতিবাচক রাজনীতির কারণে তারা নিজেরাই দেউলিয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগ বিএনপিকে দেউলিয়া করেনি। বিএনপি নেত্রী দুর্নীতির দায়ে দ-িত হয়েছে। অথচ বিএনপি বলছে, আওয়ামী লীগ তাকে জেলে পাঠিয়েছে।
আগামী রোজার ঈদের আগেই ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের ৫০ কিলোমিটার চার লেনে উন্নীত করারও আশ্বাস দেন সড়ক মন্ত্রী। জানান, ৬০টি কালভার্ট, ২৬টি মধ্যে ২৪টি সেতুর কাজ পুরোপুরি এবং তিনটি ফ্লাইওভারের ৭০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। ঈদের আগে এ সড়ক যানজটমুক্ত থাকবে আশ্বাস দিয়ে কাদের আগামী নির্বাচনের আগে টাঙ্গাইলে শতভাগ বিদ্যুতায়নেরও আশ্বাস দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ