ঢাকা, বৃহস্পতিবার 15 March 2018, ১ চৈত্র ১৪২৪, ২৬ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ব্যবসা-বাণিজ্য নিছক সম্পদ অর্জনের মাধ্যম নয়, সেটা একটি ইবাদতও

বান্দরবান ব্যবসায়ী কল্যাণ পরিষদের তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে আলোচনা পেশ করছেন মাওলানা শহীদুল ইসলাম বারকাতি, আল্লামা মামুনুর রশীদ নূরী ও মাওলানা আলাউদ্দিন ইমাম

বায়তুশ শরফ মজলিসুল ওলামা বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা মামুনুর রশীদ নূরী বলেছেন, ব্যবসায়ীক জীবনে পণ্যদ্রব্যের দোষ ত্রুটি গোপন রাখা ইসলামী আদর্শের পরিপন্থি একটি জঘন্য কাজ। মানুষ নামের কোন ব্যক্তি ব্যবসা-বাণিজ্যে এ জাতিয় নোংরামী করতে পারে না। তিনি বলেন, ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে উভয়ই যদি সততাকে প্রাধান্য দেয় তাহলে সেই ব্যবসাতে আল্লাহ তালা বরকাত দান করবেন এবং পণ্য দ্রব্যকে সকল ধ্বংসাত্মক বিপর্যয় থেকে নিরাপদে রাখবেন। মাওলানা নূরী আরো বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্য নিছক সম্পদ অর্জনের হাতিয়ার নয় বরং সেটা একটি ইবাদতও। ব্যবসাতে শুধু পেঠের দাবী পূরন করা আর প্রবৃত্তির লালসা চরিতার্থ করা সৎ ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য হতে পারে না। হালাল উপায়ে সম্পদ অর্জনের পাশাপাশি নৈতিক ও আত্মিক পরিশুদ্ধি অর্জন করাই ব্যবসার মূল উদ্দেশ্য হতে হবে। মাওলানা নূরী বর্তমান সরকার কর্তৃক দূর্নীতি ও ভেজাল বিরোধী অভিযানকে স্বাগত জানিয়ে আরো বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত ব্যবসায়ীদের স্বার্থ সংরক্ষণের সুবিচারপূর্ণ বিধান প্রনয়ন ও বাস্তবায়নের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করা না হবে ততক্ষন পর্যন্ত দূর্নীতিও ভেজাল বিরোধী অভিযানের সুফল পাওয়া যাবে না। তিনি বলেন, এ অভিযানের সাথে সাথে ব্যবসায়ীদের পণ্য উৎপাদনের সকল উপাদান গুলো সহজলভ্য করে আমলাতান্ত্রিক জটিলতা ও দূর্নীতি বন্ধসহ চাঁদাবাজদের দৌরাত্ম্য নির্মূল এবং পরিবহন যাতায়াতকে পূর্ণ নিরাপত্তা সরকারকে দিতে হবে।
১০ মার্চ রাতে বান্দরবান ব্যবসায়ী কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে কে এস প্রু মার্কেট সংলগ্ন প্রধান সড়কে অনুষ্ঠিত মাহফিলে আলোচনাকালে মাওলানা নূরী উপরোক্ত কথা বলেন।
বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আলাউদ্দিন ইমামীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাহফিলে প্রধান ওয়ায়েজ ছিলেন সাউথ ইষ্ট ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ড. হাফেজ মাওলানা শহীদুল ইসলাম বারকাতি। বিশেষ ওয়ায়েজ ছিলেন মাওলানা এহসানুল হক আল মঈন, হাফেজ মাওলানা মো: মুজিবুল হক প্রমুখ। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো: আবদুল কুদ্দুস।
প্রধান মুফস্সির মাওলানা শহীদুল ইসলাম বারকাতি বলেন, ইসলামের সঠিক দিক নির্দেশনা মেনে মুসলমানদের চলতে হবে। কোরআন এবং সুন্নাহর ভিত্তিতে একটি সুন্দর সমাজ বির্নিমাণ করতে পারলেই দেশের সকল মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারবে। তিনি বলেন আল কোরআনই ধর্ম,বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের নিরাপত্তা বিধান নিশ্চিত করেছেন। তাই সকল মানুষকে কোরআনের দিকে ফিরে আসতে হবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ