ঢাকা, বৃহস্পতিবার 15 March 2018, ১ চৈত্র ১৪২৪, ২৬ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মধ্যপাড়া কঠিন শিলা প্রকল্পে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে ভূ-অভ্যন্তরে দুর্ঘটনার আশংকা

মো. আফজাল হোসেন ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) : মধ্যপাড়া কঠিন শিলা প্রকল্পে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারনে পাথর খনির ভূ-অভ্যন্তরে কর্মরত খনি শ্রমিক ও বিদেশী  বিশেষজ্ঞদের প্রাণহানির আশংকা। গত ২৬ শে ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং তারিখে মধ্যপাড়া পাথর খনির ভু-অভ্যন্তরে প্রায় ৩০০ মিটার গভীরে  পাথর উত্তোলনের জন্য যে বিস্ফোরণ ঘটানো হয় তাহার ফলশ্রুতিতে  সৃষ্ট বিষাক্ত গ্যাস ভুগর্ভ হইতে  নির্গমনের সময় বিকাল ৪.১১ মিঃ হতে ৫.১১ মিনিট পর্যন্ত পরপর তিনবার হঠাৎ বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার ফলে খনির ভূু-গর্ভে অবস্থানরত শতাধিক খনি শ্রমিক  ও বিদেশী  বিশেষজ্ঞদের জীবন মারাত্মক হুমকির মুখে পড়ে। পাথর খনির অভ্যন্তর বিষাক্ত গ্যাস দ্বারা পরিপূর্ণ হয়ে যাওয়ার কারণে ভু-গর্ভে কর্মরত খনি শ্রমিক ও বিদেশী বিশেষজ্ঞদের শ্বাস-প্রশ্বাস ও হৃদস্পন্দন প্রায় বন্ধ হয়ে গিয়ে প্রাণহানীর আশংকা দেখা দেয়। কিন্তু খনি পরিচালনাকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জিটিসি এর  বিদেশী  বিশেষজ্ঞগণ কর্তৃক ত্বরিত গতিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করার ফলে মধ্যপাড়া পাথর খনি মর্মান্তিক বিয়োগান্তকর দূর্ঘটনা হতে রক্ষা পায়।
উল্লেখ্য যে, খনি শিল্পে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ  অত্যাবশ্যকীয় হওয়া সত্বেও খনি কর্তৃপক্ষ মধ্যপাড়া গ্রানাইট মাইনিং কোম্পানী  লিমিটেডের এই ব্যাপারে উদাসীনতার কারণে বিদ্যুৎ বিভ্রাট মধ্যপাড়া পাথর খনিতে এখন নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপারে পরিণত হয়েছে। ফলশ্রুতিতে, খনিতে কর্মরত শ্রমিক ও বিদেশী বিশেষজ্ঞগণ জীবনের চরম ঝুঁিক নিয়ে খনি অভ্যন্তরে কাজ করতে বাধ্য হচ্ছেন।
এছাড়া নিয়মিত বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে খনিতে অবস্থিত বৈদ্যুতিক সরঞ্জামাদি ও মূল্যবান যন্ত্রপাতি প্রায়শই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। যাহার কারণে খনিতে পাথর উৎপাদনের খরচও দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।
অরো উল্লেখ্য যে, যে কোন আন্তর্জাতিক  খনি আইন অনুযায়ী যে কোন খনিতে দুটি পৃথক উৎস হইতে দুইটি স্বতন্ত্র বিদ্যুৎ সরবরাহ লাইন প্রদান করার বাধ্যবাধকতা থাকিলেও  মধ্যপাড়া গ্রানাইট মাইনিং কোম্পানী লিমিটেড কর্তৃপক্ষের  বছরে পর বছর ধরে এই ব্যাপারে কোন ব্যবস্থা গ্রহন না করা বিদেশী খনি বিশেষজ্ঞদের মাঝে উদ্বেগ সৃষ্টি করেছে।
এব্যাপারে খনিতে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করণের মাধ্যমে যথাযথ কর্তৃপক্ষের দ্রুততার সহিত ব্যবস্থা গ্রহন অতীব জরুরী বলে খনি সংশ্লিষ্ট  দেশী ও বিদেশী বিশেষজ্ঞ ও খনি শ্রমিকরা মনে করেন। খনি কর্তৃপক্ষ অতিদ্রুত মধ্যপাড়া কঠিন শিলা প্রকল্পে উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন একটি জেনারেটর স্থাপনের জন্য বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ